চান্দিনায় পরকিয়ার জেরধরে প্রেমিকের উপর হামলা; মুমূর্ষু অবস্থায় আই.সি.ইউতে ভর্তি

মাসুমুর রহমান মাসুদ,চান্দিনা(কুমিল্লা):–
কুমিল্লার চান্দিনায় দুই সন্তানের জননীর সাথে পরকিয়া প্রেমে লিপ্ত হওয়ায় প্রেমিক শাহজাহানকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে প্রেমিকা আকলিমার পরিবার।
শনিবার (২৫ জানুয়ারি) গভীর রাতে চান্দিনা উপজেলার কেরনখাল ইউনিয়নের তেঘরিয়া গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

মারাত্মক আহত অবস্থায় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আই.সি.ইউ)তে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে শাহজাহান (৩০)। এ ঘটনায় প্রেমিকা আকলিমা ও তার স্বামী আমির হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। আহত শাহজাহান একই উপজেলার মহিচাইল ইউনিয়নের বামুটিয়া গ্রামের আব্দুস ছালাম এর ছেলে।

উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামের মিজানুর রহমানসহ স্থানীয়রা জানান, ‘প্রায় সাত বছর পূর্বে তেঘরিয়া গ্রামের আবুল কাশেম এর মেয়ে আকলিমাকে একই উপজেলার বামুটিয়া গ্রামের নবী নেওয়াজের ছেলে আমির হোসেন সাথে বিবাহ দেন। দাম্পত্য জীবনে আকলিমা এক ছেলে ও এক মেয়ের জননী। প্রায় দুই বছর যাবৎ আকলিমা তার শ্বশুর বাড়ি সংলগ্ন শাহজাহান নামে এক যুবকের সাথে পরকিয়া প্রেমে লিপ্ত হয়। প্রেমের টানে দুইবার বাড়ি ছাড়ে যুগল। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আকলিমার পরিবারে কলহ সৃষ্টি হলে আকলিমা তার বাপের বাড়ি তেঘরিয়ায় চলে আসেন। শনিবার রাতে প্রেমিক শাহজাহান আকলিমার বাড়িতে আসলে আকলিমার পরিবার ক্ষিপ্ত হয়ে শাহজাহানকে এলোপাথারী কুপিয়ে আহত করে।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন শাহজাহানকে উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও পরে ঢাকা এশিয়ান হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শাহজাহান আশংকা মুক্ত হয়নি বলে জানান তার পরিবারের সদস্য ও পুলিশ।

এব্যাপারে চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গোলাম মোর্সেদ জানান, ‘প্রাথমিক তদন্তে পরকিয়া প্রেমের জের ধরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে পাওয়া যায়। আহতদের পিতা আব্দুস সালাম বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনার সাথে জড়িত প্রেমিকা আকলিমা ও স্বামী আমির হোসেনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে’।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply