কাদের মোল্লার ফাঁসি: বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত স্থগিত

ঢাকা:–
মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসি বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত স্থগিত রাখতে অন্তবর্তীকালীন আদেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

মঙ্গলবার রাত ১২টা ১ মিনিটে এই ফাঁসি কার্যকর করার কথা ছিল। এই আদেশের ফলে ফাঁসি কার্য্যকর করতে পরবর্তী নির্দেশনার জন্য অপেক্ষা করতে হবে কিনা জানা যায়নি।

রাত পৌনে ১১টার দিকে ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে কাদের মোল্লার আইনজীবীরা আদেশের কপি নিয়ে কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করেন। এরপর সিনিয়র জেল সুপার ফরমান আলী সাংবাদিকদের জানান,  রায়ের কার্যকারিতা স্থগিত করা হয়েছে। আজ কাদের মোল্লার ফাঁসি হবে না। তবে কবে হচ্ছে তা নিশ্চিত করেননি তিনি।

রাত সোয়া ১০টায় চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন কাকরাইলের জাজেস কমপ্লেক্সের নিজ বাসভবন থেকে রায়ের কার্যকারিতা স্থগিতের আদেশ দেন।

বুধবার সকালে আদালতে বিষয়টির শুনানি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন সর্বোচ্চ আদালত।

আদেশ পেয়েই কাদের মোল্লার আইনজীবীরা ছুটে যান সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে। সেখান থেকে আনুষ্ঠানিকতা শেষে স্থগিতাদেশটি নিয়ে তারা কেন্দ্রীয় কারাগারের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার ফাঁসি ঠেকাতে রিভিউ আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার জজ সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের বাসভবনে জরুরি শুনানি করেন তাঁর আইনজীবীরা।

আদেশ পাওয়ার পর ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক সাংবাদিকদের জানান, এই আদেশের পরও কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর করা হলে তা হবে আদালত অবমাননা।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় আবেদনটি নিয়ে তাঁরা চেম্বার বিচারপতির বাসভবনে উপস্থিত হলে রাষ্ট্রপক্ষের কাছে আবেদনের কপি সরবরাহ করা হয়েছে কিনা জানতে চাওয়া হয়। বিচারপতির পরামর্শে আবেদনের একটি কপি অ্যাটর্নি জেনারেলকে পৌঁছে দিতে যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব ও তাজুল ইসলাম।

তাঁরা অ্যাটর্নি জেনারেলকে বাসভবনে না পেয়ে আবেদনের কপি তাঁর হাতে পৌঁছানোর জন্য বাসভবনে দিয়ে আসেন বলে চেম্বার বিচারপতিকে জানান আইনজীবীরা। এপর্যায়ে আবেদনের যৌক্তিকতা ও আইনি বিষয়াদি প্রকাশ্য আদালতে শুনানির জন্য সকাল ১০টায় সময় নির্ধারণ করা হয়। এ শুনানির স্বার্থে কাদের মোল্লার ফাঁসি সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত স্থগিত রাখতে আদেশ দেওয়া হয়।

এর আগে সন্ধ্যার দিকে মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত  জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছে তার আইনজীবীরা।

শুনানিতে ছিলেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক ও তাজুল ইসলাম। এবং জাজেজ কমপ্লেক্সের সামনে ছিলেন প্রায় ১৫ জনের মতো আইনজীবী ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা।

আবেদন শুনানির আগে সরকারের প্রধান আইনজীবী অ্যার্টনি জেনারেলর মাহাবুবে আলমের খোঁজে ডিফেন্সের আইনজীবী টিম গিয়ে তাকে বাসায় পায়নি বলে জানা গেছে। তারা বলছেন অ্যাটর্নি জেনারেলকে বাসায় খুঁজে পায়নি। তাই তারা অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে আবেদনের কপি না দিয়ে তাকে পৌঁছাতে বাসায় রেখে এসেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply