দেবিদ্বার মুক্তদিবস পালিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ

যথাযোগ্য মর্যাদায় কুমিল্লার দেবিদ্বারে পালিত হয়েছে ‘দেবিদ্বার শত্রু মুক্তদিবস’। ১৯৭১সালের এই দিনে দেবিদ্বার পাক হানাদার মুক্ত হয়েছিল। দিবসটি উদ্যাপন উপলক্ষে দেবিদ্বার উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা প্রেসক্লাব’র যৌথ উদ্যোগে শোভাযাত্রা, ‘মুক্তিযুদ্ধে দেবিদ্বার’ শীর্ষক আলোচনা সভা, সাংবাদিক সাইফুদ্দিন রনীর’র ৫৮তম রক্তদান উপলক্ষে ‘মোহনা টেলিভিশন’ দর্শক ফোরাম’র আয়োজনে গুনীজনদের উত্তরীয় ও সম্মাননা (ক্রেষ্ট) প্রদান ও শিল্পকলা একাডেমী এবং আবিৃত্তি বিকাশ’র পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।
???????????????????????????????

সকাল ৯টায় সর্বস্তরের জনতার উপস্থিতিতে উপজেলা কমপ্লেক্স থেকে একটি শোভাযাত্রা করা হয়। এসময় দেবিদ্বার নিউমার্কেট মুক্তিযোদ্ধা চত্তর, উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও গণকবরে স্বাধীনতা সংগ্রামে শহীদদের স্মরনে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন,- উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রেসক্লাব, থানা প্রশাসন, কমিউনিস্ট পার্টি, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, পৌরসভা, দৃষ্টান্ত ফাউন্ডেশন।
সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আব্দুস সামাদ’র সভাপতিত্বে এবং দেবিদ্বার উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান একেএম সফিকুল আলম কামাল, উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) কেএম গোলাম কবির। অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ভূঞা, সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ কবির আহমেদ, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) তারেক মোহাম্মদ হান্নান, উদীচী শিল্পিগোষ্ঠী উপজেলা সভাপতি মোসলেহ উদ্দিন মিছির, কৃষক সমিতি উপজেলা সাধারন সম্পাদক মমিনুল ইসলাম বুল বুল, মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, মোরছালিন জান্নাত প্রমূখ।

DEBIDWAR PIC_ MOKTO DIBOS PALITO- 04.12.13 (1)
পরে দেবিদ্বার উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার’র সভাপতিত্বে ‘জীবন বাঁচাতে রক্তের প্রয়োজন, আপনার এক ব্যাগ রক্ত বাঁচাতে পারে একজন মূমূর্ষ রোগী’ এ আহবান জানিয়ে ‘দৃষ্টান্ত ফাউন্ডেশন’র পরিচালক সাংবাদিক সাইফ উদ্দিন রণীর ৫৮তম রক্তদানের মধ্য দিয়ে ‘মোহনা টেলিভিশন’ দর্শক ফোরাম’র আয়োজনে গুনীজনদের উত্তরীয় ও সম্মাননা (ক্রেষ্ট) প্রদান করা হয়েছে।
উত্তরীয় ও ক্রেষ্ট প্রদান করা হয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসেন, সাংবাদিক সাইফ উদ্দিন রনী, লায়ন মোঃ মোসলেহ উদ্দিন, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান একেএম সফিকুল আলম কামাল, উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) কেএম গোলাম কবির, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আব্দুস সামাদ,থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) তারেক মোহাম্মদ হান্নান, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার, সাংবাদিক এসএম তোফায়েল আহমেদ, এসএম মাসুদ রানা, এটিএম সাইফুল ইসলাম মাছুম।
উল্লেখ্য ১৯৭১ সলের রক্তে ঝরা দিনগুলোতে মুক্তি ও মিত্রবাহিনীর যৌথ আক্রমনে হানাদার মুক্ত হয়েছিল কুমিল্লার বিভিন্ন অঞ্চল। তারই ধারাবাহিকতায় দেবিদ্বার এলাকা হানাদার মুক্ত হয়েছিল ৪ডিসেম্বর। মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর যৌথ অভিযানে ওইদিন হানাদারদের বিরুদ্ধে আক্রমন পরিচালনা করে। ৩ডিসেম্বর রাতে মুক্তিবাহিনী ‘কুমিল্লা-সিলেট’ মহাসড়কের কোম্পানীগঞ্জ সেতুটি মাইন বিষ্ফোরনে উড়িয়ে দেয়। মিত্রবাহিনীর ২৩ মাউন্ড ডিভিশনের মেজর জেনারেল আর.ডি বিহারের নেতৃত্বে বৃহত্তর কুমিল্লায় এই অভিযান পরিচালিত হয়। মিত্রবাহিনীর একটি ট্যাংক বহর বুড়িচং ব্রাক্ষনপাড়া হয়ে দেবিদ্বারে আসে। হানাদাররা ওই রাতেই দেবিদ্বার ছেড়ে কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসে পালিয়ে যায়। ধীরে ধীরে মুক্তিবাহিনীর বিভিন্ন গ্রুপ দেবিদ্বার সদরের দিকে অগ্রসর হতে থাকে। এরই মধ্যে মিত্রবাহিনীর ট্যাংক বহরটি দেবিদ্বার থেকে চান্দিনা রোডে ঢাকা অভিমুখে যাওয়ার সময় মোহনপুর এলাকায় ভুল বোঝাবুঝির কারনে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে গুলি বিনীময় হলে মিত্রবাহিনীর ৬ সেনা সদস্য নিহত হয়। এই দিনে দেবিদ্বারের উল্লাসিত জনতা ও মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীন বাংলার পতাকা নিয়ে বিজয় উল্লাসে ‘জয়বাংলা’ শ্লোগানে মেতে উঠে। দুপুর পর্যন্ত ওই দিন হাজার হাজার জনতা বিজয় উল্লাসে উপজেলা সদর প্রকম্পিত করে তোলে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply