৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় নির্বাচন

ঢাকা:–
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে নির্বাচনের এ তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ।

তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২ ডিসেম্বর। বাছাই ৫-৬ ডিসেম্বর এবং প্রত্যাহার ১৩ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ১৪ ডিসেম্বর এবং ভোট গ্রহণ হবে ৫ জানুয়ারি।

নির্বাচনী এলাকার সংখ্যা ৩০০ টি। মোট ভোটার সংথ্যা ৯ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার ২৯০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার চার কোটি ৬১ লাখ ২৩ হাজার ৩১৮ জন ও মহিলা চার কোটি ৫৮ লাখ ৪২ হাজার ৯৭২। রিটার্নিং অফিসারের সংখ্যা ৬৬ জন। সহকারি রিটার্নিং অফিসারের সংখ্যা ৫৫৭ জন।

প্রিজাইডিং অফিসার ও সম্ভাব্য প্রিজাইডিং অফিসার ভোট কেন্দ্র চূড়ান্ত হওয়ার পরে জানানো হবে। পোলিং অফিসারের সংখ্যা  তিন লাখ ৫৮ হাজার ১০৬ জন। নিবন্ধিত দলের সংখ্যা মোট ৪০ টি।

ভাষণে সব রাজনৈতিক দলকে সমঝোতার মাধ্যমে নির্বাচনে আসার আহ্বান জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

তিনি বলেন, আশা করি জনগণের প্রত্যাশা পূরণে সব রাজনৈতিক দল এগিয়ে আসবে এবং একটা রাজনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমে সকলের অংশ গ্রহণে একটা সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে জনগণ তাদের রায়ের প্রতিফলন দেখতে পাবেন।

ভাষণে সিইসি আরও বলেন, রাজনৈতিক সমঝোতার জন্য তারা অপেক্ষা করলেও সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার জন্য তা আর সম্ভব নয়।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে সিইসির এই ভাষণ বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারে প্রচার করা হয়।

সিইসির ভাষণ ধারণের জন্য দুপুরেই প্রস্তুতি শুরু হয় কমিশন কার্যালয়ে। বিটিভির মহাপরিচালক ম হামিদ নিজে উপস্থিত থেকে সিইসির কক্ষ সাজানোর বিষয়টি তদারক করেন। পরে কাজী রকিবের প্রায় আধা ঘণ্টার এই ভাষণ ধারণ করা হয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply