কুমিল্লার মুরাদনগরে বিএনপি’র ৫ হাজার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা পুলিশের মামলা

মো: মোশাররফ হোসেন মনির,মুরাদনগর(কুমিল্লা):–
কুমিল্লার মুরাদনগরে এখন শুরু হয়েছে পুলিশী তান্ডব। গত বুধবার ১৮ দলীয় জোটের মিছিলে পুলিশ-আওয়ামীলীগ যৌথ হামলার পরে রাত থেকে শুরু হয় পুলিশের বাড়ি বাড়ি তল্লাশী-ভাংচুর ও গ্রেফতার অভিযান। বুধবার রাতে পুলিশ শতাধিক বাড়িতে হানা দিয়েছে। এতে পুরো এলাকায় চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। শুধু ১৮ দলীয় নেতা-কর্মী নয়, অনেক সাধারণ মানুষের বাড়িতেও পুলিশ অভিযানের নামে তান্ডব চালাচ্ছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১৫০ জন নাম উল্লেখ সহ ৫ হাজার নেতাকর্মীদের আসামী করে ৩ টি মামলা করে মুরাদনগর থানা পুলিশ।
গত বুধবার বিকেলে মুরাদনগর শহরে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশ ও আওয়ামীলীগ যৌথভাবে ১৮ দলীয় জোটের মিছিলে হামলা চালায়। এতে ১৮ দলীয় জোটের দুই শতাধিক নেতা-কর্মী আহত হন। পুলিশ বেপরোয়া গুলি বর্ষণ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।
স্থানীয় সূত্র জানান, এই ঘটনার পর রাতে মুরাদনগরের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ তল্লাশীর নামে তান্ডব চালায়। পুলিশ কমপক্ষে শতাধিক মানুষের বাড়িতে হানা দিয়েছে। এরমধ্যে ওমর, তকদির, মুরাদনগর থানা বিএনপির সেক্রেটারী মজিব মোল্লা, যুগ্ন সম্পাদক কামাল উদ্দিন ভূইয়া, শামিম, হাফেজ মোহাম্মদ আলী, মোবারক, মাহমুদ, আমিরুল ইসলাম, ফজর আলী মেম্বর, নেছার উদ্দিন, মোঃ আলাউদ্দিন, মাসুম মুন্সি, সৈয়দ পিয়া, হুমায়ুন ও বেলালের বাড়িতে ব্যাপক তান্ডব চালানো হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। তাদেরকে পুলিশের উপর হামলা, কর্তব্যকাজে বাধাদান ও ভাংচুর মামলায় আসামী করা হয়েছে বলে থানার ডিউটি অফিসার জানিয়েছেন।
এদিকে, রাতে যখন বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালায় তখন অনেকেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন। শিশু এবং বৃদ্ধরা পুলিশী তান্ডব দেখে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে। অনেকে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন বলে স্থানীয় সূত্র জানায়। পুলিশী এই তান্ডবের পরে বাড়িতে বাড়িতে বিলাপ চলছে। শিশুদের কান্না থামছে না। স্থানীয় সূত্র জানান, বুধবারে ১৮ দলীয় জোটের মিছিলে হামলা এবং পরবর্তী সময়ে জোট নেতাদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশী তল্লাশীর নামে তান্ডবের ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। একটি সূত্র জানিয়েছে, ঘটনার পর মুরাদনগরের ব্যবসায়ীদের উপরও নির্যাতন শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ কয়েকজন ব্যবসায়ীকেও ধরে নিয়ে গেছে।
এদিকে মুরাদনগর থানায় যোগাযোগ করা হলে থানার ডিউটি অফিসার এএসআই জয়নাল আবেদিন গতরাতে জানান, ঘটনার ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তিনি বলেন, ওই ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply