কুমিল্লার চান্দিনায় এলডিপি’র অফিস ও বিএনপি’র বিলবোর্ড-দোকান ভাংচুর

মাসুমুর রহমান মাসুদ, চান্দিনা(কুমিল্লা):–
চান্দিনায় উত্তপ্ত রাজনীতিক অঙ্গন। বিএনপি-এলডিপি সম্পর্ক যেন সাপে-নেউলে অবস্থায় রূপ নিয়েছে। চান্দিনায় লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) কুমিল্লা উত্তর জেলা কার্যালয় ও বিএনপি নেতার বিলবোর্ড-দোকান ভাংচুর করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে চান্দিনা উপজেলা সদরে বিএনপি ও এলডিপি’র পাল্টা-পাল্টি এসব ঘটনা ঘটে।
কুমিল্লা উত্তর জেলা এলডিপি সভাপতি একেএম সামছুল হক জানান, ‘১৮দলীয় জোটের ডাকা ৮৪ ঘন্টা হরতালের তৃতীয় দিন মঙ্গলবার বিকেলে আমরা চান্দিনা মোকামবাড়ি শাহী ঈদগাহ মাঠে একত্রিত হলে বিএনপি নেতা-কর্মীরা আমাদের চান্দিনাস্থ দলীয় কার্যালয়ে ভাংচুর চালায়। আমরা এ বিষয়ে উর্ধ্বতন নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা সহায়তা নিব’।
চান্দিনা পৌর এলডিপি সহ-সভাপতি উপাধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম ভূইয়া, ‘আমাদের নেতা-কর্মীরা যাতে মিছিলে সমবেত হতে না পারে সেজন্য বিএনপি’র কর্মীরা উপজেলা সদরের বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কগুলোতে অবস্থান নিয়ে আমাদের নেতা-কর্মীদের বাঁধা দেয় এবং মারধর করেন। এসময় ড. রেদোয়ান আহমেদ এর ভাগিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ এর সহকারী গ্রন্থাগারিক সফিকুল ইসলাম আহত হয়।
এদিকে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি সভাপতি আলহাজ্ব মো. খোরশেদ আলম জানান, ‘মঙ্গলবার চান্দিনা সদরে আমাদের দলীয়  কোন কর্মসূচী ছিল না। ১৮দলীয় জোটের ডাকা ৮৪ ঘন্টা হরতাল সফল করতে আমাদের নেতাকর্মীরা চান্দিনার মাধাইয়া-কুটুম্বপুর-এতবারপুর-জোয়াগ ও বদরপুরে অবস্থান নিয়েছিল। বিকেলে এলডিপি বিক্ষোভ মিছিলের নামে চান্দিনা উপজেলা সদরসহ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে থাকা সকল বিলবোর্ড ভাংচুর করে। এছাড়াও আমাদের যুবদল নেতা আবু তাহের টিটু’র ফায়ার সার্ভিস এলাকাস্থ একটি মটোর পার্টেসের দোকানে ভাংচুর ও লুটপাট চালায়’।
খোরশেদ আলম আরও জানান, ‘বিএনপি নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে এলডিপি’র লোকজনই তাদের অফিস ভাংচুর করে আমাদের উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছে’।
এদিকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সোমবার ও মঙ্গলবার (১১ ও ১২ নভেম্বর) উভয় পক্ষের নেতাকর্মীরা বিরোধী পক্ষের ব্যানার-ফ্যাস্টুন ভাংচুর করেছে।
সোমবার বিকেলে উপজেলা সদরে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় তারা বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ স্লোগান দিয়ে চান্দিনা পালকি সিনামা হল, পল্লী বিদ্যুৎ ও হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় হাজী মো. মোসলেহ উদ্দিন এর বাস ভবন সংলগ্ন স্থানে লিবারেল ডেক্রেটিক পার্টি’র (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ এর ছবি সম্বলিত ফেস্টুন ভাংচুর করে।
ওই ঘটনার পর পর চান্দিনা বাজারস্থ এলডিপি’র দলীয় কার্যালয় ও বিএনপি’র দোকান ভাংচুরের ঘটনাস্থ পরিদর্শন করেন চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ ছালেহ্ আহাম্মদ ও থানা অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) হুমায়ূন কবির।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply