ব্রাহ্মণপাড়ায় ১৮দলীয় জোটের ৬০ ঘন্টা হরতালের ২য় দিন

সৈয়দ আহাম্মদ লাভলুঃ–
নিরপেক্ষ নির্দলীয় তত্বাবদায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও নেতাকর্মীদের উপর হামলা ও মামলার প্রতিবাদ জানিয়ে এবং গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবীতে ৫ নভেম্বর মঙ্গলবার টানা ৬০ ঘন্টার হরতালের ২য় দিনে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে ১৮দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিলসহ পিকেটিং করেছে। উপজেলা সদর এলাকায় উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব শাহআলম খোকন ও সাংগঠনিক দায়িত্বে মোঃ আমির হোসেনের নেতৃত্বে ১৮দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে হাজী নায়েব আলী মার্কেটের সামনে সমাবেশ করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন থানা যুবদলের সভাপতি সাহজাহান সাজু, সাধারন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম সরকার, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক সুমন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি জামাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান হেলাল, শ্রমিক দলের সাধারন সম্পাদক কবির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক দুলাল মিয়া, সহসভাপতি আবদুল মান্নান, গোলাম মোঃ বাকি, গাজী মনির, ফজলুল হক, যুবদল নেতা মজিবুর রহমান লিটন, জাকির হোসেন, নাজমুল হক, জাকির হোসেন বকসি, মতিন মেম্বার, আবু কালাম, বিএনপি নেতা তারু মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আনিসুর রহমান,মনিরুল ইসলাম, ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক এমদাদুল হক সবুজ, শরাফ উদ্দিন, তাজুল ইসলাম, জাহিদুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ, কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক মহসিন কামাল, ছাত্রদলনেতা মোহাম্মদ আলী, শাহজালাল, জিসাস সভাপতি আলআমিন মিয়াজী, প্রমুখ।সাহেবাবাদ ইউনিয়ন ১৮দলীয় জোটের নেতারা সাহেবাবাদ কলেজ এলাকায় পিকেটিং ও বিক্ষোভ মিছিল করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মিজানুর রহমান চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, থানা মৎসজীবি দলের সভাপতি সার্জেন্ট শফিকুল ইসলাম সরকার, যুগ্ম আহবায়ক সুলতান আহাম্মদ, জসিম উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম পিন্টু, যুবদল নেতা বিল্লাল হোসেন, আবু ইউসুফ বাবুল, জামাল হোসেন, আলমগীর মেম্বার, রুহুল আমিন, কাইয়ুম খাঁন, থানা ছাত্রদলের আহবায়ক জাকির খাঁন স¤্রাট, ছাত্রদল নেতা আবদুল জলিল,শাহ আলী খাঁন, আমানত খাঁন, ফয়েজুর রহমান ফরহাদ, আশিকুর রহমান, আবুল হোসেন, আবদুল হালিম,ইউসুফ খাঁন, রাশেদ,শাহআলী,হাসান, মোহন, শহিদ, শিমুল, খলিল খাঁন, রুবেল, জাকির, মোহন, কাদের, হাবিব, মোর্শেদ, বাবু, আনোয়ার, কামাল, হাছান, সিরু, খাঁজা, পৈরম খান, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মিজান, প্রমুখ। দুলালপুর ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা দুলালপুর দক্ষিণ বাজার সংলগ্ন দুলালপুর-নাল্লা সড়কের মাথায় পিকেটিং করে। নেতাকর্মীরা দুলালপুর বাজারের বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে। নেতাকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন থানা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনিসুর রহমান ভ’ইয়া রিপন, ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক মনিরুল ইসলাম সরকার, যুগ্ম আহবায়ক আবুল কালাম মেম্বার, তাজুল ইসলাম সরকার, আবদুস সালাম সরকার, শ্রমিকদল সহ-সভাপতি জামাল মৈশাল, যুবদল সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু কাউছার, সাবেক আহবায়ক মৎসজীবি দল নাজমুল হক ভ’ইয়া, ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহবায়ক বাবলু মৈশান, বিএনপি নেতা মোশারফ হোসেন সোহেল, শাহআলম মহাজন, হুমায়ন কবির, জাহাঙ্গীর আলম, কাজী গোলাম মোস্তফা, যুবদল নেতা ফরহাদ হোসেন, মাসুদ আলম, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দল আহবায়ক ডাঃ বাবলু, যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ আলী, কামরুল হাসান ভুইয়া, ছাত্রদল নেতা আবদুস সাওার, জামায়াত নেতা কাজী আবদুল হান্নান, শহিদ মৈশান, রুহুল কবির, প্রমুখ। চান্দলা ১৮দলীয় জোটের নেতাদের উদ্দোগে একটি বিশাল বিক্ষোভ মিছিল চান্দলা এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। নেতাকর্মীরা বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে পিকেটিং করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন চান্দলা ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক মোশারফ হোসেন কাউছার, যুবদল ইউনিয়ন সভাপতি আলমগীর হোসেন, থানা মৎসজীবি দলের সাধারন সম্পাদক আল-মামুন, যুবদল নেতা আবদুল মোতালেব, ছাত্রদল নেতা উজ্জল মুন্সি, জামায়াতের থানা আমীর মিজানুর রহমান আতেকী, জামায়াত নেতা রফিকুল ইসলাম ভ’ইয়া, রহমত উল্লা খাঁন, আমিরুল ইসলাম, মাহাবুবুর রহমানসহ ১৮ দলীয় জোটের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। শশীদল ইউনিয়ন ১৮দলীয় জোটের উদ্দোগে শশীদল আবু তাহের কলেজের সামনে পিকেটিং ও বিক্ষোভ মিছিল করে। থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম কিবরিয়া অপু ও ছাত্রদল নেতা আমিন, নাজমুল, রবিন, রুবেল, শরীফের নেতৃত্বে ছাত্রদল ও ১৮দলীয় জোটের নেতারা বিক্ষোভ মিছিল ও পিকেটিংয়ে অংশ নেয়। দুপুরে পুলিশের একটি দল তাদের ধাওয়া করে ছত্রবঙ্গ করে দেয়। মাদবপুর ইউনিয়ের মাধবপুর বাস স্টেন্ড এলাকার বিভিন্ন সড়কে ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল ও পিকেটিং করেছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক প্রভাষক সফিকুল ইসলাম, মনির হোসেন আখন্দ, শহীদ মেম্বার, নাছির কাজী, থানা স্বেচ্ছাসেবক দল সেক্রেটারী আক্রামুল ইসলাম, যুবদল নেতা শাহআকরাম, জেলা ছাত্রদল নেতা বদিউল আলম স¤্রাট, মোঃ হান্নান সরকার, ছাত্রনেতা শামিম, রায়হান, মোঃ বাবুল, দোলা মিয়া, শিবির নেতা সাইদুল ইসলামসহ ১৮দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ। হরতালে দুরপাল্লার কোন যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। ব্যাংক, বীমা,সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতি ছিল কম। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করতে দেখা গেছে। অপরদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপজেলার বিভিন্ন সড়কে হরতাল বিরুধী সভা সমাবেশ করেছে। কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply