সরকারি কর্মচারিরা চাকর নয় প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী- বি. চৌধুরী

ঢাকা :–

বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, এই সরকার যাতে আবার ক্ষমতায় আসতে না পারে সে লক্ষ্যে ন্যূনতম কর্মসূচির ভিত্তিতে বিরোধী দলের ঐক্য গড়ে তুলে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি আদায় করতে হবে।
সরকারি কর্মচারিদের সম্পর্কে আওয়ামী লীগ নেতার সাম্প্রতিক বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, সরকারি কর্মচারিরা কারো বাবার চাকর নয়, তারা প্রজতন্ত্রের কর্মচারি। তারা যোগ্য এবং মেধাবী হিসেবেই সরকারি কমকর্তা-কর্মচারির দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁদের অপমান করার অধিকার কারো নেই।
বি. চৌধুরী শুক্রবার বিকালে বিকল্পধারার কুড়িল বিশ্বরোডের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত যোগদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। এর আগে শিক্ষাবিদ, পেশাজীবী ও ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন দলের ২ শতাধিক নেতা-কর্মী বি. চৌধুরীর হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে বিকল্পধারায় যোগ দেন। বিকল্প স্বেচ্ছাসেবক ধারার সভাপতি বিএম নিজামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মেসবাহউদ্দিন জুন্নুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক ডা. আবু মোজাফফর আহম্মেদ, সাবেক রাষ¦ট্রদূত আবদুর রহিম, ইঞ্জিনিয়ার মো. ইউসুফ, শাহ আহমেদ বাদল, মনজুর রাশেদ, ওয়াসিমুল ইসলাম, মো. শাহ আলম, জহিরুল আলম সেলিম, আবুল বাসার, সনি আদিত্য এবং বিকল্পধারায় সদ্যযোগদানকারী শিক্ষাবিদ ড. নজরুল ইসলাম খান, ড. এ.কে.এস আমিনুল হক, ড. শহীদুল্লা প্রামানিক, সাবেক মহিলভ দলনেত্রী রিনা রহমান, ইঞ্জিনিয়ার ফাহিম হোসেন, ব্যবসায়ী আবদুর রহমান রনি, মিলন চৌধুরী, কৃষিবিদ মিলন মিয়া প্রমুখ।
অর্থমন্ত্রী ছাত্রদের বদমাস বলার নিন্দা করে বি. চৌধুরী বলেন, নিজের ছাত্রদের বদমাস বলতে আপনার লজ্ঝা হয় না। এ কথা বলার পর অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত ছিল।
প্রধানমন্ত্রীর জাতি সংঘে দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, জাতি সংঘে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী অস্ত্র না কেনার উপদেশ দিলেন। কিন্তু নিজে হাজার হাজার কোটি টাকার অস্ত্র কিনেছেন। গত ৫ বছরে তিনি কত হাজার কোটি টাকার অস্ত্র কিনেছেন তার হিসাব কি দিতে পারবেন? এ সব অস্ত্র দেশের মানুষের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, গত ৫ বছরের শত শত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে, গুম করা হয়েছে রাজনৈতিক নেতা সহ বহু মানুষকে।
নির্বাচন কমিশনকে মেরুদন্ডহীন উল্লেখ করে বি. চৌধুরী বলেন, তারা সরকারের আজ্ঞাবহ, খেলার নির্বাচন করতে চায়। কিন্তু জনগণ তত্ত্ববধায়ক সরকারের অধীনে ছাড়া কোনো খেলার নির্বাচন মেনে নিবে না।
তিনি বলেন, মাছ, শাক-সবজি ও ফলমূলে ফরমালিন দেওয়াও বন্ধ করতে পারেনি এই সরকার, আসলে সরকারের কোনো ক্ষমতাই নেই।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply