দাউদকান্দিতে এনজিও কর্মীকে কুপিয়ে জখম, ৫৩ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট লুট ॥ গ্রেফতার ২

শামীমা সুলতানা :–
দাউদকান্দিতে সফিকুল ইসলাম নামের এক এনজিও কর্মীকে মারাত্মকভাবে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। দাউদকান্দির আঙ্গাউড়ার এক এনজিও কর্মীর সঙ্গে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইলসহ আন্যান্য মালামাল লুট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটে বুধবার রাতে উপজেলার ছান্দ্রা এলাকায়।
এ সময় সফিকুল ইসলামের চিৎকারে স্থানীয় জনতা দাউদকান্দির মাইথারকান্দি গ্রামের হেলাল উদ্দিনের পুত্র নাছির উদ্দিন (২৪) ও তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি গ্রামের আক্তার হোসেনের পুত্র ইমরান হোসেন (২৫) কে আটক পুলিশে সোপর্দ করেন।
এলাকাবাসী, পুলিশ ও এনজিও সূত্রে জানা যায়, তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি গ্রামের ইমরান হোসেন ব্যুরো বাংলাদেশ অফিস থেকে ৪০ হাজার টাকা ঋণ নেন। কয়েকবার তাগিদ দেওয়ার পরও সেই টাকা পরিশোধ করেননি তিনি। বুধবার বিকেলে এ এনজিও কর্মী সফিকুল ইসলামকে টাকা দেওয়ার কথা বলে ডেকে নেয় ইমরান। টাকা পাওয়ার আশায় সফিকুল ইসলাম সারাদিনের সংগ্রহ করা ৫৩ হাজার টাকাসহ তার কাছে গেলে সে নানা ছলচাতুরির মাধ্যমে জিংলাতলীর কুমারবাড়ি কবরস্থানে নিয়ে যায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে জখম করে এবং তার কাছে থাকা ওই টাকা ও মোবাইল সেট নিয়ে যায়।
সফিক চিৎকার করলে দৌঁড়ে পালানোর সময় সন্ত্রাসীদের শরীরে রক্তমাখা কাপড় দেখে এলাকাবাসী তাদের ২ জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। পুলিশ মারাত্মকভাবে আহত এনজিও কর্মী টাইঙ্গল জেলার ধনবাড়ি থানার কুরছি গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র সফিকুল ইসলামকে উদ্ধার করে। তাকে প্রথমে গৌরীপুর হাসপাতাল পরে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।
এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেফতাকৃতদেরকে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply