পর্দার আড়ালে জেহাদ ভাই

—জান্নাতুল ফেরদৌসী (নিলু)
অতীত কোন দিনই ফিরে আসে না। কিন্তু স্মৃতি মোছে না। মানুষ যখন অতীতের স্মৃতির মাঝে ডুবে যায়। তখন বর্তমান অতি তুচ্ছ মনে হয়। আনন্দ ও বেদনা দিয়ে ঘেরা সেই স্মৃতি ময় অতীত জীবন কে দেয় এক নব অভিজ্ঞন, আজকের দিন গুলো ও যে অতীত হয়ে যাবে তারই ইঙ্গিত, আর এভাবেই কয়েক সেকেন্ড, মিনিট, ঘন্টা ও দিন পূর্ন করে অতিবাহিত হলো বেশ বিছু দিন, যা এখন শুধুই অতীত। সেই অতিতের মধুময় দিন গুলো এখন ও বার বার মনকে নাড়া দেয়। কাল দ্রুত চলে যায়, রেখে যায় পদচিহৃ। সে পদচিহৃ অতীত মৃর্ত হয় মানুষের কাছে। অতীতের কথা, কাহিনী, বীরত্ব কালের বুকে লীন হয়ে গেলে ও তা সজীব থাকে ইতিহাসের পাতায়। কালের বিবর্তনে রুপসী বাংলা, অন্য দিগন্ত আরো অনেক পত্রিকায় প্রতিদিন নিউজ রির্পোট আসে অনেক সাংবাদিক কর্মী ভাইদের। নতুন করে নতুন ভাবে এখন আর আসে না জেহাদ ভাইয়ের রির্পোট আর আসবে কি, করে সে তো চলে গেছে না ফেরার দেশে। তবু কোন না কোন পত্রিকার পাতা খুললে মনে পরে জেহাদ ভাইয়ের কথা। আজো উঁকি দেয় তাঁর স্মৃতি গুলো। বর্তমান মানুষের জীবন সমস্যা সংকুল বিশ্বে যখন অস্থিরতা বৃদ্ধি পেয়েছে। স্নায়ুযুদ্ধ চলছে প্রতি নিয়মিত। এই অবস্থায় সারা বিশ্বের সংবাদ জানার আগ্রহ প্রতিটি মানুষের। সংবাদ পত্র সকল শ্রেণীর মানুষের কাছেই প্রিয়। এটি রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সচেতনতা গড়ে তোলার হাতিয়ার। সংবাদ পত্র জাতিকে প্রেরণাদেয়, সত্যপথ অনুসরনে উদ্ধুদ্ধ করে। সকল সংবাদকমী ভাইয়েরা প্রতিনিয়ত নানা বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে মিথ্যার বিরুদ্ধে, অন্যায়ের প্রতিবাদ সংগ্রামী চেতনা গড়ে তুলছে। তার বস্তুনিষ্ঠ ও নিরপেক্ষ সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে। বুড়িচং উপজেলার এবং কুমিল্লা জেলার সকল সংবাদ কমী ভাইয়েরা সকল পত্র পত্রিকায় তাঁদের নির্ভীক সংবাদ দিয়ে তৈরী নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশনে এবং বিশেষনে সাংবাদিকতার পবিত্র দায়িত্ব পালনে এগিয়ে চলছে দূর্বার গতিতে কুমিল্লা জেলার সকল পত্রিকার কর্তৃপক্ষ প্রতিটি সংখ্যায় জেলার যুক্তি নিষ্ঠ অপ্রকাশিত সমস্যা মূলক সংবাদ, দুনীতি চিত্র ফুটিয়ে তুলছে। এর ক্ষুরধার সাংবাদিকদের মাধ্যমে। এ ছাড়া বিভিন্ন সংবাদের বর্ননা নিয়ে শুভ এবং অশুভ দিক সর্ম্পকে সম্পাদকীয় ও উপসম্পাদীকীয় কলামে সুত-চিন্তিত অভিমত প্রকাশ করে ভালবাসা অর্জন করে নিচ্ছে অগনিত পত্রিকা প্রেমী পাঠকের। তাই আমার ভালবাসা শুধু সকল সংবাদ কমীদের জন্যে। তাই আমি বলব জীবনের প্রতিটি মুহুতে শুভ বুদ্ধি জন্ম হোক সংবাদ কমী ভাইদের। আমাদের দেশের সকল সংবাদকমীগন দেশের এবং বর্তমান সমাজের প্রতিদিনের নিত্য নতুন খবর এবং সমাজের প্রতিটি মানুষের ভাল মন্দ,নিয়ম, অনিয়ম সব খবর তথ্য সংগ্রহ করে প্রতি টি পত্রিকায় তুলে ধরেন। সংবাদকর্মী ভাইয়ের আমার আপনাদের প্রতিদিনের খবরা খবর ছবিসহ নানা ভাবে বিভিন্ন পত্রিকায় তুলে ধরেছেন। নিয়মিত প্রতি দিন তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে তাদের শ্রম দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অনেক জায়গায় যেতে হয়। অনেক বাধা বিঘœ ডিঙ্গিয়ে অনেক তথ্য সংগ্রহ করতে হয়। বর্তমান সমাজের সত্য ঘটনা গুলো তুলে ধরতে গিয়ে অনেক সময় বিপদের সমুখীন ও হতে হয়। তাদের জীবনের নিরাপত্তা ও থাকেনা, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন র্দুনীতি বাজদের হুমকির কবলে ও পড়তে হয়। এমন কি ? কিছু, কিছু সত্য ঘটনা প্রভাবশালী ব্যক্তিদের তুলে ধরতে গিয়ে তাঁদের হয়রাণির শিকার হতে হয়। হরতালের সময় গাড়ী ভাংচুর, রাস্তা ঘাটে বিভিন্ন সময় জালাও পুড়াও এই সব তো নিত্য দিনের সঙ্গি। সাংবাদিক পেশা জড়িতরা যখন ঘটনা স্থলে গিয়ে পৌঁছেন এবং তাদের ক্যামেরায় ঐ সব দৃশ্য বন্ধি করেন, ছবি উঠান ঐ মুহুর্তে দেখা গেছে, সংবাদ কর্মীদের পুলিশের লাঠিচার্জ এবং বিভিন্ন ভাবে হয়রানি হওয়া বা নির্যাতিত হন। সংবাদ কর্মীরা দেশের ও সমাজের সেবা মূলক কাজ করতে গিয়ে তাদের জীবনে অনেক মূল্য ও দিতে হয়। তাই আমি এই দেশের এই সমাজের প্রতিটি মানুষকে বলব সংবাদকর্মীরা হলো এই দেশের সম্পদ, তাঁরা আমাদের বন্ধু, শত্র“ নয়। তাদেরকে যথাযথ সম্মান করা মূল্যায়ন করা আমাদের উচিৎ। সংবাদ কর্মীরা তাদের শ্রমের বিনিময়ে তাদের সুন্দর মুহুর্তের সময় গুলো কে ভাল ভাবে উপভোগ না করে এই দেশের এই সমাজের নিত্য নতুন ভাল মন্দ, সত্য মিথ্যা সব ধরনের খবরা খবর সকল পত্রিকাটিতে তুলে ধরেন। ভাল মন্দ, তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে তাদের অনেক সময় জামেলায় পড়তে হয় তবু ও থেমে থেকেনা তাদের নীতির কলম। সাংবাদিক ও লেখক লেখিকাদেরকে যথাযথ মর্যাদাদেওয়া আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। অবশেষে বলতে চাই জেহাদ ভাই মরে গিয়ে ও অমর হয়ে আছে আমাদের সকলের মাঝে। জেহাদ ভাই নিজে ও জানত না পর্দার আড়ালে জেহাদ ভাইকে মানুষ কতটা ভালো বাসতো ? তবে তাঁর মৃত্যুতে সত্যি কারের ভালবাসা কাকে বলে তা জেহাদ ভাইযের জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল নেমে এসেছে বয়ে গেছে অসংখ্য মানুষের চোখের অশ্র“ জল। কতটা ছিল জেহাদ ভাই মানুষের প্রিয়, তা ফুটে উঠেছে জেহাদ ভাইয়ের মৃত্যুতে। পর্দার আড়ালে সবাই জেহাদ ভাইকে ভালো বাসতো মৃত্যু করে গেল তার প্রমাণ। জেহাদ ভাই চলে গেলেন, না-ফেরার দেশে কিন্তু রেখে গেলেন অসংখ্য ভক্ত। রেখে গেলেন সকল মানুষের প্রতি শুভ বুদ্ধি শুভ কামনা। জেহাদ ভাই তুমি যেখানে থাকো যেভাবে থাকো ভাল থেকো। সুখে থেকো তুমি ভাল থাকলে আমরা সকলে ভাল থাকব। তুমি সুখে থাকলে আমরা সুখে থাকব। বলব না ভালবাসা দাও।

=============================
লেখক :–জান্নাতুল ফেরদৌসী ( নিলূ)
উপজেলা: বুড়িচং, কুমিল্লা

Check Also

মাদকসন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকারকেই জোরালো ভূমিকা নিতে হবে

—-মো. আলীআশরাফ খান লেখার শিরোনাম দেখে হয়তো অনেকেই ভাবতে পারেন, কেনো লেখাটির এমন শিরোনাম দেয়া ...

Leave a Reply