কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ১৫

মো: শাকিল মোল্লা, কুমিল্লা :–
চৌদ্দগ্রামে আজ বৃহস্পতিবার বাক বিতন্ডার জেরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। বিকেল পৌনে সাতটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।
বাজারের ব্যবসায়ী ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, উপজেলার গুনবতী বাজারের হানাফি ষ্টিল করপোরেশনের মালিক, বাজার কমিটির সেক্রেটারী পাশ্ববর্তী চাপাচৌ গ্রামের আবদুর রাজ্জাক শাহীনের কয়েক বছর আগে ওয়ালটন শো-রুম ছিল। সেখান থেকে খাটরা গ্রামের শাহজাহানের ছেলে নুরুজ্জামান একটি টিভি কিনে। বৃহস্পতিবার সকালে টিভির সমস্যা দেখা দিলে নুরুজ্জামান সেটি মেরামতের জন্য শাহীনের বর্তমান দোকানে নিয়ে আসে। কিন্তু শাহীন তাকে টিভিটি নতুন শোরুমে নিয়ে যেতে বললে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে শাহীন নুরুজ্জামানকে মারধর করে। পরে নুরুজ্জামানের গ্রামের লোকজন শাহীনের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। খবর পেয়ে শাহীনের গ্রামের লোকজনও জড়ো হয়ে বাজারে খাটরা গ্রামের লোকজনের উপর হামলা চালায়। বেশ কয়েকবার অস্ত্রসস্ত্র ও ইটপাটকেল নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে উভয় গ্রামের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। আহতরা স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়।
চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, ‘বাক বিতন্ডার জেরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। তারপরও আইনশৃংখলা রক্ষার্থে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন রয়েছে’।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply