হরতালের দ্বিতীয় দিনে কুমিল্লায় সড়ক অবরোধ ও ককটেল বিস্ফোরণ

সাকিল মোল্লা, কুমিল্লা :–

জামায়াতের ডাকা হরতালের দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার কুমিল্লা নগরীতে ২টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটেছে। ভোর ৬ টায় নগরীর শাসনগাছা এলাকায় হরতাল সমর্থনকারিরা ২ টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ভোর ৭ টায় জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে নগরীর শাসনগাছা, টমছমব্রিজ এলাকায় মিছিল করে এবং শাসনগাছা এলাকায় ২ টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। নগরীতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
এ বিষয়ে কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহিউদ্দিন মাহমুদ মুঠোফোনে জানান, এ বিষয়ে আমি অবগত নই।
এদিকে লাকসাম উপজেলার পরানপুর এলাকায় সকাল ৭ টায় হরতালের সমর্থনে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা মিছিল বের করে এবং গাছের গুড়ি ফেলে রাস্তা অবরোধ করে। পরে পুলিশ এসে রাস্তা থেকে গাছের গুড়ি সরিয়ে নেয়।

কুমিল্লা মহানগরী রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে,বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক আবরোধের মাধ্যদিয়ে হরতাল পালন করে।
সকাল ৬টার দিকে ঢাক চট্রগ্রাম মহাসড়কে হরতালের সমর্থনে টায়ারে আগুন জালীয়ে রাস্তা অবরোধ করে। নগরীর ধোলতপুরে রাস্তায় গাছের গুড়ি পেলে অবরোধ করে রাখে ।নগরীর ধর্মপুরে মহানগরীর মহানগর শিবিরের সাংগঠনিক সম্পাদক কমাল হোসাইন এর নেতৃত্বে মিছিল করে । নগরীর বাখরাবাদ হরতালের সমর্থনে রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে রাজপথ অবোরোধ করে ।
এদিকে জামায়াতের ডাকা হরতাল সফল করায় মহানগর বাসীকে অভিন্দন জানিয়েছেন, কুমিল্লা মহানগরী জামায়াতের আমীর কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, সেক্রেটারী মোসলেহ উদ্দিন, মহানগরী শিবির সভাপতি মনির আহম্মেদ, সেক্রেটারী মো শাহ আলাম।

অপরদিকে শিবির চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চৌদ্দগ্রাম বাজারে, চিওড়া বাজার ও মিয়া বাজারে, আমজাদ বাজার, বাতিসা রাস্তায় ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে গাছের গঁড়ি ফেলে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে, এতে নেতৃত্ব দেন জেলা অর্থ সম্পাদক আমজাদ হোসেন রোমন ও প্রশিক্ষন সম্পাদক মোশারফ হোসেন, অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সভাপতি সাহাব উদ্দিন, ইকবাল হোসেন, বোরহান উদ্দিন ও আলী হোসেন। লাকসাম উপজেলা শিবিরের উদ্দেগ্যে লাকসাম বাইপাস এলাকা ,কৃষ্নপুর ও মুদাফ্ফরগঞ্জ,পরানপুর রাস্তায় আগুন দিয়ে সড়ক অবরোধ করে শিবির কর্মীরা,এতে নেতৃত্ব দেন জেলা সেক্রেটারী আবদুর রব ফারুকী অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শহর সভপতি শাহাদাত হোসেন,উপজেলা সভাপতি ফয়েজুর রহমান ও নেয়ামত উল্যাহ সবুজ। মনোহরগঞ্জ উপজেলার বিপুলাশার ঢাকা-নোয়াখালী রোড়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে ছাত্রশিবির, এতে নেতৃত্ব দেন জেলা শিক্ষা সম্পাদক মাইন উদ্দিন অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সভাপতি সাইফুল বারী,আরিফুল ইসলাম,হাসান মাহমুদপ্রমুখ। বরুড়ায় জেলা সাহিত্য সম্পাদক আরিফখানের নেতৃত্বে,নাংগলকোটে জেলা প্রকাশনা সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলও সড়ক অবরোধ করা হয়, অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সভাপতি যোবায়ের ফয়সাল.কেফায়েত উল্যাহ.মোস্তাফিজুর রহমান শামীম.মজিবুর রহমান। এই ছাড়াও জেলার চৌয়ারা.সুয়াগাজী, মুদাফ্ফরগঞ্জ সহ মোট ২৫ টি স্থানে পিকিটিং হয়।শান্তি পূর্ন ভাবে হরতাল পালন করার জন্যে কুমিল্লা জেলার সকল জনসাধারনকে জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির কুমিল্লা জেলা দক্ষিনের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কুমিল্লা দক্ষিন জেলা আমীর আঃ সাত্তারও শিবির সভাপতি জয়নাল আবেদীন আভিন্দন জানান।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply