কুমিল্লার মেঘনায় বজ্রপাতে স্কুল ছাত্র নিহত ॥ আহত ৪

মো: শাকিল মোল্লা, কুমিল্লা :–
বুধবার সকাল সাত টার দিকে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় আকস্মিক বজ্রপাতে নদীতে মাছ শিকারকালে জুয়েল (১৪) নামের ষষ্ঠ শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে। সাথে তার পিতা শাহাবুদ্দিন (৪০) আহত হয়। বজ্রপাতে আহত হয়েছে অন্য পরিবারের আরো তিন জন। নিহত স্কুল ছাত্রের পিতা মো. শাহাবুদ্দিনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আহতদের চার জনকে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও এবং এক জনকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওইদিন সকাল বেলা উপজেলার তুলাতুলি শিবনগর গ্রামের সাহাবুদ্দিন মিয়া তার ছেলেকে নিয়ে নদীতে মাছ শিকারে যায়। এ সময় সকাল সাত টার দিকে আকাশে মেঘের ঘনঘটার সাথে হঠাৎ বজ্রপাত হয়। এতে মাছ শিকারকালে জুবেল ঘটনস্থলেই নিহত হয় । সে সুন্দলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র । এতে পিতা শাহাবুদ্দিনও মারাত্মক আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়। অপরদিকে একই সময়ে বজ্রপাতের ঘটনায় একই এলাকার ডিপটি মিয়ার টিন শেড বিল্ডিং এর দেয়াল ধ্বসে পড়লে এর চাপায় ওই পরিবারের পাঁচ সদস্য মারাত্মক আহত হয়। আহতরা হলেন গৃহকর্তা ডিপটি মিয়া (৫০), স্ত্রী তফুরা বেগম (৪০) ও ছেলে সুমন (২০)। হৃদয়বিদারক এ দুর্ঘটনাকবলিত পরিবারের স্বজনদের আহাজারিতে আকাশ ভারি হয়ে উঠে ও গোটা এলাকায় গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। এদিকে নিহত স্কুল ছাত্র জুবেলকে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নাসিম জানান, তিনি এলাকার লোকজনের মারফত বজ্রপাতের ফলে হতাহতের খবর শুনেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply