ব্রাহ্মণপাড়ায় দুই মহিলার গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা : থানায় অপমৃত্যুর মামলা

সৈয়দ আহাম্মদ লাভলুঃ–

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানাপুলিশ বুধবার (১৭ সেপ্টেম্বর) উপজেলার সাহেবাবাদ ও কান্দুঘর গ্রাম থেকে দুই মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দুটি কুমিল্লা মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। এসব ঘটনায় ব্রাহ্মণপাড়া থানায় পৃথক দুটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।
পারিবারিক ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কান্দুগর গ্রামে প্রবাসী জিল্লুর রহমানের স্ত্রী খাদিজা খানম (২২) গত মঙ্গলবার রাত ১০টায় ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস লাগায়। এ সময় তার দেড় বছরের ছেলে চিৎকার করতে থাকে। পরিবারের সদস্যরা শিশুটির চিৎকার শুনে দ্রুত খাদিজার ঘরে এসে দেখে সে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলছে। তাকে উদ্ধার করে দেখে খাদিজা মারা গেছে। নিহত খাদিজা খানম মুরাদনগর উপজেলার সালামত খানের মেয়ে।

অন্যদিকে উপজেলার সাহেবাবাদ গ্রামের মৃত মাঞ্জু মিয়ার স্ত্রী জাহানারা বেগম (৫৮) গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় তার বসত ঘরে আত্বহত্যা করে। পরিবারের সদস্যরা ঘরের জানালার গ্রীলের সাথে গলায় কাপড় পেচানো ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ দেখতে পায়। পরিবারের সদস্যরা রাতে ব্রাহ্মণপাড়া থানাপুলিশকে খবর দিলে থানার উপ-পরিদর্শক মো. ইয়াহিয়া খাঁন লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত বৃদ্ধার ছেলে মো. মাসুদ মিয়া বলেন, আমার মায়ের কোন শত্রু ছিল না। কি কারনে তিনি আত্নহত্যার পথ বেছে নিলেন আমরা কেউ বুঝতে পারছি না। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক ইয়াহিয়া খাঁন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে লাশ দুটির গলায় দাগ পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ দুটি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরন করা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply