কুবিতে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

কুবি প্রতিনিধি:–
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন এবং প্রত্বতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক নিয়োগে চরম অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে, পছন্দের প্রার্থীদের নিয়োগ দিতে অনেক যোগ্য প্রার্থীদের ভাইভা কার্ড ইস্যু করা হয়নি। কোন অভিজ্ঞ সদস্য ছাড়াই বোর্ড বসানোর জন্য ভিসি চেষ্টা করলেও লোকপ্রশাসন বিভাগের প্রধান মাসুদা কামালের আপত্তির মুখে নিয়োগ বোর্ড স্থগিত করা হয়। গতকাল নিজ অফিসে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে লোক প্রশাসন বিভাগের প্রধান মাসুদা কামাল এসব তথ্য জানান।
সংবাদ সম্মেলনে মাসুদা কামাল আরো বলেন, নিয়োগ বোর্ডের জন্য বিশেষজ্ঞ সদস্যকে উপস্থিত থাকার জন্য কমপক্ষে এক সপ্তাহ আগে জানাতে হয়। অথচ এ নিয়োগে বিশেষজ্ঞ হিসেবে ঢাবি লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মহব্বত খান কে গতকাল (রোববার) জানানো হয়েছে। ব্যাস্ত থাকায় তিনি উপস্থিত থাকতে পারেনি। অপর আরেক বিশষজ্ঞ দেশের বাইরে অবস্থান করছেন বলেও জানা যায়। তিনি আরো বলেন, বর্তমান ভিসি সকল নিয়ম নীতি তোয়াক্কা না করে পদোন্নতিতে সেচ্ছাচারিতা করেছেন। পদোন্নতির নীতিমালা রাষ্ট্রপতি কর্তৃক পাশ না হওয়ার পরও অভিজ্ঞতা ও প্রকাশনার শর্ত পূর্ন না করা সত্ত্বেও তিনি নিজের পছন্দের শিক্ষকদের ইচ্ছেমতো পদোন্নতি দিচ্ছেন। লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষক রশিদুল ইসলাম শেখ কে প্রভাষক পদে নিয়োগদানের এক বছরের মধ্যে সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়। ব্যাস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আহসানউল্লাহ কে নিয়োগ দানের ২ বছর ছয় মাসের মধ্যে সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়। জানা যায়, এ পদোন্নতির জন্য শিক্ষক সমিতি বিভিন্ন ইস্যুতে ভিসি বিরুধী আন্দোলনে নামে। আরো অভিযোগ করেন, নতুন চালু করা প্রতœতত্ত্ব বিভাগটি কোন অনুষদের অধীনে এ বিষয়টিই একাডেমিক কাউন্সিল কিংবা সিন্ডিকেটে পাশ করা হয়নি। ওই বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের ভাইভা সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে অনুষদের ডীন উপস্থিত রাখা হয়নি। বিশেষজ্ঞ দুজনই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং আবেদনকারী সকলেই ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করা।
অভিযোগ পাওয়া যায়, পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দিতে অনেক যোগ্য প্রার্থীকে ভাইভা কার্ড ইস্যু করেনি। ভুক্তভূগী কয়েকজন আবেদনকারী সাংবাদিকদের ফোন করে বলেন, ভিসির পছন্দের প্রার্থী থাকায় বেছে বেছে ভাইভা কার্ড পাঠানো হয়েছে। এটা চরম সেচ্ছাচারিতা। আমরা অভিলম্বে এ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধের দাবী জানাই।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভিসি ড. আমির হোসেন খান সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নিয়মনীতি সব ঠিক রেখেই নিয়োগ কার্যক্রম চলছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply