কলেজ জীবন হচ্ছে ছাত্রজীবনের একটি গুরুত্বপুর্ণ অধ্যায়

সৈয়দ আহাম্মদ লাভলুঃ–
মাদক যুব সমাজকে ধংস করে দিচ্ছে। মাদকমুক্ত একটি সমাজ গড়ে তোলার জন্য শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসতে হবে। বাংলাদেশের মানুষ আর কোন ঐশীকে দেখতে চায় না। কলেজ জীবন হচ্ছে ছাত্রজীবনের একটি গুরুত্বপুর্ণ অধ্যায়। কলেজ জীবন থেকে যারা নিজেদের সংযত রেখে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন জীবন গড়ে তুলতে পারবে, তারাই একদিন দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন দপ্তরের অনেক উচ্চ আসনে অধিষ্ঠিত হতে পারবে। ইভটিজিং এর সাথে যারা জড়িত, উপযুক্ত প্রমান সাপেক্ষে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে, অতএব ইভটিজারদের নাম ঠিকানা আমার কাছে পৌছে দেবে। যারা স্কুল ও কলেজের ছাত্রীদের উত্তক্ত করে তাদের কোন আবস্থাতেই ছাড় দেয়া হবে না। ভুলে গেলে চলবে না মেয়েরা আমাদেরই সন্তান ও বোন। তাদের বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা করা সমাজের প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব ও কর্তব্য। ৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার একমাত্র মহিলা কলেজ আবদুল মতিন খসরু মহিলা কলেজ মিলনায়তনে ব্রাহ্মণপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উত্তম কুমার বড়ুয়া এ কথাগুলো বলেন। তিনি শিক্ষার্থীদের ধুমপান, মাদক, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহসহ বিভিন্ন অপরাধমুলক কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়ে তাদের মাঝে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন লিফলেট, পুলিশ অফিসারের বিভিন্ন মোবাইল নাম্বার সম্বলিত ভিজিটিং কার্ড, ক্লাস রুটিনের কার্ডসহ বিভিন্ন শিক্ষা সামগ্রী বিতরন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ গৌরাঙ্গ চন্দ্র দাস এবং কলেজের প্রভাষকবৃন্দরা হলেন- মোঃ হুমায়ন কবির, জামালউদ্দিন, সফিউল্লাহ, প্রীতিলতা দাস, জয়দল হোসেন, প্রবাল কুমার দে, খলিলুর রহমান, মজিবুর রহমান, এমরান আলী, সুমি চক্রবর্তী, বিশ্বজিত সাহা। উপস্থিত ছিলেন শরীরচর্চা শিক্ষক মোঃ ফারুকসহ কলেজের প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থী।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply