কুমিল্লা মেডিকেলে শিবিরকর্মী সন্দেহে ৭৩ আটক

কুমিল্লা:–
কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ এলাকার একটি কমিউনিটি সেন্টার থেকে ‘আমরা ধূমপান নিবারণ করি’ (আধুনিক)-এর একটি সভায় অভিযান চালিয়ে ছাত্রশিবিরকর্মী সন্দেহে ৭৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা অধিকাংশই কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের ছাত্র, ইন্টার্নি ডাক্তার ও ডাক্তার বলে জানা গেছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে আটটায় নগরীর কুচাইতলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সংলগ্ন সিটি কমিউনিটি সেন্টারে বৈঠক করার সময় তাদের আটক করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ।

জানাযায়, রাত সাড়ে ৮ টায় সিটি কমিউনিটি সেন্টারে আধুনিক ক্লাব শাখার উদ্যোগে ডাক্তারদের রিসিপশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। অনুষ্ঠান চলাকালে কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশের একাধিক টিম অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মী সন্দেহে প্রায় ৮০ জন মেডিকেল ছাত্র ও ইন্টার্নি ডাক্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে রাত পৌনে ১১টায় যাচাই-বাছাই শেষে হিন্দু, উপজাতীয় ডাক্তার এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের বাদ দিয়ে ৭৩ জন শিবির নেতাকর্মীকে আটক দেখানো হয়।

কুমিল্লার এসএসপি সার্কেল জাহাঙ্গীর আলম এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, নাশকতা ও সরকারবিরোধী গোপন বৈঠক থেকে পুলিশ তাদের আটক করেছে।

এদিকে ছাত্রশিবির কুমিল্লা মহানগর সভাপতি মনির আহমেদ আটকদের বিষয়ে বলেন, “আধুনিক একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। পুলিশ উপজাতি ও ভিন্ন ধর্মের ছাত্র ও চিকিৎসকদের ছেড়ে দেয়ায় তা প্রমাণিত হয়েছে।”

মেধাবী মেডিকেল ছাত্র ও চিকিৎসকদের অবিলম্বে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

Check Also

কুমিল্লায় ডিবির অভিযানে ১৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ ডাক্তার গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ- রাজধানীতে ইয়াবা পাচারকালে ১৭ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়েছেন মো. রেজাউল হক (৪৫) নামের ...

Leave a Reply