জাতীয় শোক দিবসকে প্রেরণা করে নেতাকর্মীদের আরোও উজ্জীবিত হতে হবে ——সাবেক প্রতিমন্ত্রী মায়া চৌধুরী

শামসুজ্জামান ডলার :–

সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও ঢাকা মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রম বলেন, আগষ্ট মাস শোকের মাস। ১৯৭২ সালের ১৫ই আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সহ পরিবারে হত্যা করা হয়েছিল। শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তখন দেশের বাহিরে থাকায় প্রাণে রক্ষা পেয়েছিল। এটি আমাদের জন্য বাংলার ইতিহাসে একটি জঘন্যতম অধ্যায়। সেই খুনিরা ও তাদের সহযোগীরা আজও বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে নিঃশ্বেষ করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই ১৫ই আগষ্ট শোকের দিন আমরা আওয়ামীলীগ পরিবার ১৯৭২ সাল থেকে অদ্যবধি পালন করে আসছি। তাই জাতীয় শোক দিবসকে প্রেরণা করে নেতাকর্মীদের আরোও উজ্জীবিত হতে হবে। শনিবার দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুরে জাতীয় শোক দিবস পালনকল্পে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি একথাগুলো বলেছেন।
মায়া চৌধুরী তার বক্তব্যে আরো বলেন, বিএনপি ও জামায়ত যতোই হাঙ্গামা দাঙ্গামা করুকনা কেন আওয়ামীলীগের ক্ষতি করতে পারবে না। তিনি রাজনৈতিক উদ্দেশ্য বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় সকল নেতাকর্মী একত্রিত হয়ে কাজ করে দলকে জয়যুক্ত করতে হবে। জনগনের সাথে ভাল ব্যবহার করতে হবে। গত সাড়ে চার বছরে আওয়ামীলীগ সরকার যেসব উন্নয়নমূলক কাজ করেছে তা জনগনকে বুঝাতে হবে এবং জাতীয় শোক দিবসকে প্রেরণা করে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের আরো উজ্জীবিত হয়ে কাজ করতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এ্যাডঃ রুহুল আমিন, মতলব পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আওলাদ হোসেন লিটন। মতবিনিময় সভা শেষে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম মতলব উত্তর দক্ষিণ উপজেলার প্রত্যেক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের হাতে অসহায় দুঃস্থ্য গরীবদের যাকাতের কাপড় তুলে দেন এবং উপস্থিত অসহায় গরীব ও সহায় সম্বলহীন মহিলাদের চিনি, সেমাই কেনার জন্য নগদ অর্থ বিতরণ করেণ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মঞ্জুর আহম্মেদ মঞ্জু, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন মাষ্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম হাওলাদার, শাহজাহান প্রধান, উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা ওয়ালী উল্যাহ সরকার, ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মনির হোসেন বেপারী, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান ঢালী, ছেংগারচর পৌরসভার প্যানেল মেয়র রুহুল আমিন মোল্লা, মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, চাঁদপুর জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির হোসেন সরকার, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শরীফ, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন মুকুল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আল মাহমুদ টিটু, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মিনহাজ উদ্দিন খান, যুগ্ম আহবায়ক তামজীদ সরকার রিয়াদ, ছেংগারচর পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব আলম বাবু, ছেংগারচর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি মনির হোসেন প্রমুখ।

Check Also

যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে : বিএনপি

চাঁদপুর প্রতিনিধি :– চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সভায় বক্তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম ...

Leave a Reply