চৌদ্দগ্রামের এক মাদ্রাসা অধ্যক্ষ লাঞ্চিত

আজিম উল্যাহ হানিফ:–
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের ছুফুয়া ছফরিয়া ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ইউসুফ নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনায় লাঞ্চিত হয়েছেন। রোববার বিকেলে ঘোলপাশা ইউনিয়নের আমানগন্ডা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, মাওলানা ইউসুফের নারী কেলেঙ্কারী নিয়ে স্থানীয় লোকজন ঘোলপাশা ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াজি উল্লাহ ভূঁইয়া খোকনের নিকট অভিযোগ দেয়। এনিয়ে দুইজনের মধ্যে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান তাকে মারধরও করেন। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করে। অভিযোগ উঠেছে, মাওলানা ইউসুফ বাড়ির পাশ্ববর্তী ভাগনি ছকিনাকে সহ তিনটি বিয়ে করেছে।
এব্যাপারে মাওলানা ইউসুফ গতকাল সোমবার বিকেলে জানান, অভিযোগটি ভিত্তিহীন। চেয়ারম্যানের সাথে সরকারের সাফল্য-ব্যর্থতাসহ বিভিন্ন দিক নিয়ে বিতর্ক হয়।
এদিকে চেয়ারম্যান ওয়াজি উল্লাহ ভূঁইয়া খোকন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকাবাসীকে জিজ্ঞেস করলে ইউসুফ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন।
উল্লেখ্য, সম্প্রতি ইউসুফ ছুফুয়া ছফরিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেলেও ছাত্রদের আন্দোলনের কারণে এখনও মাদ্রাসায় যোগদান করতে পারেন নি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply