চাঁদপুরে ওয়ার্ড যুবদলের কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫০ আটক ১০

শামসুজ্জামান ডলার :–

চাঁদপুর পৌর যুবদলের ১নং ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে দু’গ্রুপের হামলায় পুরাণবাজার নতুন রাস্তার দু’পাশে বসবাসকারী রিফিউজি কলোনী ও মোম ফ্যাক্টরীর অর্ধ শতাধিক বাড়ী-ঘরসহ দোকানপাট ভাংচুরের শিকার হয়।
সংঘর্ষ চলাকালে দু’দলই দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার করে। সংঘর্ষে দু’গ্রুপের শিশু-মহিলা ও পথচারীসহ প্রায় ৫০ জন আহত হয়। তাদের মধ্যে অধিকাংশকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ও স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে নিয়ে চিকিৎসা নেয়।
এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার সকাল ১১টায় পুরাণবাজার নিতাইগঞ্জ রোডস্থ অনুপম মিলনায়তনে চাঁদপুর পৌর ১নং ওয়ার্ড যুবদলের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে। সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে ওয়ার্ড যুবদলের কমিটি ঘোষণা করতে মঞ্চে মাইক হাতে নেন শহর যুবদলের আহ্বায়ক আঃ কাদির বেপারী। এ সময় তার সামনে উপস্থিত ছিলেন ১নং ওয়ার্ড যুবদলের আহ্বায়ক যিনি সভাপতি প্রার্থী জাহাঙ্গীর মুন্সি ও যুগ্ম আহ্বায়ক যিনি সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সুমন বেপারী। এ সময় অপর সভাপতি প্রার্থী মোঃ রফিক বলতে থাকেন, হাউজ থেকে সিদ্ধান্ত নিয়ে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হোক। এ সময় দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে হট্টগোল সৃষ্টি হয় এবং চেয়াার-টেবিল ভাঙ্গা শুরু হয়। এ সময় সকল দোকানপাট ও বসত ঘর ভাংচুর করতে থাকে দু’গ্রুপের সমর্থকরা। এ সময় পুলিশ ৩ রাউন্ড শর্ট গানের গুলি নিক্ষেপ করে। এতে দু’গ্রুপের দু’এলাকা রিফিউজি কলোনী ও মোম ফ্যাক্টরীর কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়।
খবর পেয়ে এএসপি সদর সার্কেল সৈকত শাহিন, মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুব মোর্শেদ, সেকেন্ড অফিসার মাহবুব মোল্লা, ওসি (তদন্ত) শাহআলম, পুরাণবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই গোলাম কিবরিয়া, চাঁদপুর মডেল থানার এসআই রাজীবসহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। শুরু থেকে কিছু পুলিশ সদস্য সেখানে উপস্থিত থাকলেও সংঘর্ষ থামাতে তাদের তেমন কোনো ভূমিকা ছিলো না।

Check Also

যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে : বিএনপি

চাঁদপুর প্রতিনিধি :– চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সভায় বক্তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম ...

Leave a Reply