তিতাসে উদ্ধার হওয়া ২০ বোতল ফেনসিডিলের ঘটনায় ঐচারচর গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা

নাজমুল করিম ফারুক :–
তিতাসের ঐচারচর গ্রামের হক সাহেবের বাড়ীর সামনের বাঁশঝাড় থেকে মঙ্গলবার বিকালে উদ্ধার হওয়া ২০ বোতল ফেনসিডিলের ঘটনায় মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় ঐচারচর গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
ঐচারচর গ্রামের মো. শাহজাহান জানান, মঙ্গলবার বিকালে গ্রামবাসীর সন্দেহমূলকভাবে উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে ইউনুস (১৫) কে এক বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এএসআই জুলফিকার আলী ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানীয় লোকজনদের সামনে জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত ইউনুস জানায় সে ঐচারচর গ্রামের মোজাম্মেলের কাছ থেকে ফিনসিডিল কিনে এনেছে। স্থানীয় লোকজনসহ থানা পুলিশ আটক ইউনুসকে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজির করে। এসময় এলাকাবাসী খবর দেয় মোজাম্মেল তার বাড়ী থেকে ফেনসিডিল সরিয়ে ফেলছে এবং গ্রামবাসী ধাওয়া দিলে মোজাম্মেল একটি ব্যাগে ২০ বোতল ফেনসিডিল হক সাহেবের বাড়ীর সামনের বাঁশঝাড়ে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ২০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে এবং পরিতাক্ত উল্লেখ করে জব্দ করে এবং আটককৃত ইউনুস বয়সে কিশোর হওয়ায় মোবাইল কোর্টে ৫শত টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়। ঐচারচর গ্রামের মো. শাহজাহান, মো. মোতালেব, মো. কামাল হোসেন, মো. বাছেত সওদাগর ও মোঃ অলেক মিয়া অভিযোগ করেন, উক্ত ঘটনায় মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং শুক্রবার বাদ জুম্মা স্থানীয় গ্রামবাসী বৈঠক ডেকেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শ্যামলী নবী বলেন, এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের সামাজিকভাবে বয়কট করা এবং সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলা উচিত। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর হোসেন বলেন, থানা পুলিশ কখনও মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীকে ছাড় দেয়নি দেবেও না। মাদকের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে। ঘটনার পর থেকে মোজাম্মেল পলাতক এবং মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply