ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগে হাসপাতাল ভাঙচুর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভুল চিকিৎসায় শারমিন আক্তার (১৯) নামের এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। কুমারশীল মোড়ে আমীন কমপ্লেক্সের দি ল্যাব এইড শিশু ও জেনারেল হাসপাতালে মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গত সোমবার বিকেলে সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের বেহাইর গ্রামের রুহুল আমীনের স্ত্রী শারমিন আক্তার প্রসবজনিত কারণে ওই হাসপাতালে ভর্তি হন। রাতেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে গাইনী, প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ সার্জন ডা. শরীফ মাসুমা ইসমত অস্ত্রপাচারের পরামর্শ দেন। রাতে অস্ত্রপাচারের পর শারমিন আক্তার শিশু কন্যা জন্ম দেন।

মঙ্গলবার সকালে ওষুদ ও ইনজেকশন দেয়ার পর তার অবস্থা দ্রুত অবনতি ঘটতে থাকে। সকাল নয়টায় তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর পর ওই হাসাপাতালের ডিউটি ডাক্তার, সেবিকা ও কর্মচারী এবং মালিকপক্ষ হাসপাতাল ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে নিহতের আত্মীয় স্বজন ও বিক্ষুব্ধ লোকজন হাসপাতালের নিচ তলার অভ্যর্থনা কক্ষ, তিন হলার ওয়ার্ড মাস্টার, সেবিকা, অস্ত্রপাচার ও অফিস কক্ষের জানাল ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের ভাসুর শাহানুর জানান, ইনজেকশন পুশ করার পর আমার ভাইয়ের স্ত্রী মারা গেছে। ডাক্তারের ভুলের কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে। অভিযুক্ত চিকিৎসক শরীফ মাসুমা ইসমতের মোবাইলে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিভিল সার্জনের দায়িত্বে থাকা ডা. আবু সাঈদ জানান, কেউ অভিযোগ দেয়নি। চিকিৎসক দোষী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply