সিটি মেয়রদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য গণতন্ত্রের প্রতি চরম অবমাননাক—-ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন

শামীমা সুলতানা,দাউদকান্দি :–

আজ রোববার কুমিল্লা দাউদকান্দি সদরে পৌর বিএনপি আয়োজিত ইফতারপূর্ব এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, সিটি মেয়রদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য গণতন্ত্রের প্রতি চরম অবজ্ঞা ও অবমাননাকর। গণতন্ত্রের প্রতি যে তাদের সামান্যতম শ্রদ্ধাবোধ নেই, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যেই তার বহি:প্রকাশ ঘটেছে। নির্বাচিত মেয়রদের সন্ত্রাসী ও দুর্নীতিবাজ আখ্যা দিয়ে তিনি ভোটারদের অশ্রদ্ধা এবং গণতন্ত্রকে বিপদগ্রস্ত করেছেন। তাদের যে পায়ের নিচে যে মাটি নেই, তা এখনো অনুভব করতে পারছে না তারা। তাই প্রধানমন্ত্রী আবোল-তাবোল বকছেন এবং ভবিষ্যৎ নির্বাচনকে অনিশ্চিত করেছেন। আ.লীগ ’৭২-৭৫ সময়ে গণতন্ত্র নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছিল। তখন তারা একদলীয় বাকশাল কায়েমের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে হত্যা করেছিল। আ.লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না, তাদের কাছে গণতন্ত্র কখনোই নিরাপদ নয়।
তিনি সরকারকে সাফ জানিয়ে দেন, ছলচাতুরী করে কোন লাভ নেই, আগামী জাতীয় নির্বাচন নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়কের অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে। তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা পুনর্বহালে কোন টালবাহানা করলে তার পরিণতি অত্যন্ত ভয়ংকর হবে বলে সরকারকে আবারো হুঁশিয়ারী দেন বিএনপি’র এই সিনিয়র নেতা। দেশের ৯০ ভাগ মানুষ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক পদ্ধতিতে নির্বাচন চায়, তা উপলব্ধি করে জনগণের দাবি মেনে নেবার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে পরামর্শ দেন ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, আ.লীগ ক্ষমতায় এসে জনগণের কেবল ক্ষতিই করেছে। তারা দেশ ও জাতির জন্য কোন কাজ করেনি। শেয়ার বাজার ও হলমার্ক কেলেংকারী, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতি, দলীয়করণ ও লুটতরাজ চালিয়ে দেশটাকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করেছে। দেশকে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে বিএনপি’র নেতৃত্বের কোন বিকল্প নেই। দেশের মানুষ তাই আজ বিএনপি ও বেগম খালেদা জিয়ার দিকে চেয়ে আছে। বিএনপি যখন ক্ষমতায় থাকে তখন দেশ ও জনগণের উন্নয়ন হয়। মানুষ ভাল থাকে। ড. মোশাররফ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক পুনর্বহালের দাবি আদায়ের আন্দোলনে শরিক হতে প্রস্তুতি নেবার জন্য সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।
দাউদকান্দি পৌর বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, দাউদকান্দির পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, বিএনপি নেতা শাহজাহান চৌধুরী, একেএম শামসুল হক, আবুল হাসেম চেয়ারম্যান, এম. আব্দুস সাত্তার, যুবদল নেতা ভিপি জাহাঙ্গীর আলম, ছাত্রদল নেতা ভিপি সাহাবুদ্দিন ভূঁইয়া প্রমূখ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply