তিতাসে বর্ষার শুরুতেই প্রকাশ্যে কারেন্ট জাল বেচাকেনার জমজমাট হাট

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস(কুমিল্লা)–

কুমিল্লার তিতাসের বাতাকান্দি বাজারে বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই জমজমাট প্রকাশ্যে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বেচাকেনা।
সরেজমিনে পরিদর্শনকালে দেখা যায়, উপজেলার বাতাকান্দি বাজারে প্রায় শতাধিক খুচরা ও ৫-৬ জন পাইকারী ব্যবসায়ী উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের সাথে সমন্বয় করে প্রকাশ্যে কারেন্ট জাল বিক্রি করছে। জাল ব্যবসায়ী মোঃ আঃ জলিল, নুরুল ইসলাম, বিল্লাল হোসেন, মোঃ আলম, রুক্কু মিয়া, ইসলাম হোসেন, শহিদ উল্লাহ, মোমেন মিয়া জানান, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ প্রকাশ্যেই জাল বিক্রি করে আসছেন। বিক্রি করা জাল থেকে শতকরা হারে ২০টাকা খাজনা আদায়কারীদের কাছে জমা দিতে হয়। জাল কিনতে আসা আমির হোসেন নামে এক ব্যক্তি জানান, ৭শত টাকা দিয়ে জাল কিনে তাকেও খাজনা দিতে হয়েছে ১৪০ টাকা। অর্থ্যাৎ ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়কে খাজনা দিতে হয় এ জাল বাজারে। নাম না প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক একজন খাজনা আদায়কারী জানান, স্থানীয় সাংবাদিক ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের যোগসাজেশে প্রকাশ্যে জাল বিক্রি করা হচ্ছে। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (চঃ দাঃ) আরাফাত উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাতাকান্দিতে প্রকাশ্যে কারেন্ট জাল বিক্রি হচ্ছে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। কিছুদিন পূর্বে আমরা অভিযান চালিয়ে বিপুল সংখ্যক কারেন্ট জাল জব্ধ করেছি।
উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন বাতাকান্দি বাজারে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল ব্যবসায়ী উপজেলার সাহাবৃদ্ধি গ্রামের আকিল আহম্মেদের ছেলে ইব্রাহিম সরকার (১৯), মজিদপুর গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে রাব্বানী (২১), মুরাদনগর মিজাপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে আলী আকবর (২৪), দাউদকান্দি জুরাইনপুর কদমতলীর ঝাড়– গাজীর ছেলে এলাহী (২৬) সহ বিপুল পরিমাণ জাল আটক করে। ঐদিন বিকালে আটককৃত ৪ জনকে ছেড়ে দেয়া হলেও জালগুলো জব্দ করা হয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply