রবি ইন্টারনেট মেলা : ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিলো চট্টগ্রাম কলিজিয়েট হাই স্কুলের শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রাম :–
‘ইন্টারনেট নিয়ে আমার মধ্যে একটা ভীতি ছিল। আজকে সেটি কেটে গেলো। প্রথমে আমি ক্যারাভ্যানে ঢুকতে চাইনি। আমার বন্ধু আরেফিন উৎসাহ দিয়েছে। তাই ঢুকলাম। ভালো লাগলো। ইন্টারনেটে ঢুকে আমি গুগল থেকে কিছু তথ্য জানলাম। কিন্তু বন্ধুদের এত ভিড় যে, তাড়াতাড়ি বের হয়ে আসতে হয়েছে।’ এভাবেই ইন্টারনেট মেলায় এসে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানালো চট্টগ্রাম কলিজিয়েট হাই স্কুলের শিক্ষার্থী অমি।
একই স্কুলের আরেক শিক্ষার্থী রায়ান বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা দারুণ। আমি বাসায় ব্যবহার করতে চাই, কিন্তুছোট বলে আমাকে ব্যবহার করতে দেয় না। তবে ইন্টারনেটে অনেক কিছু দেখা ও পড়া যায়। আমি জাফর ইকবাল স্যারের ই বুক দেখলাম। মজাই লাগলো। সবারই ইন্টারনেট অভিজ্ঞতা থাকাটা জরুরী। বাসায় বলে নেট ব্যবহার করা ঠিক না। কিন্তু আমরা নেট ব্যবহার করতে চাই। নেটের খরচ একটু বেশি। এটা কমালে ভালো হয়।
শনিবার রবি ইন্টারনেট মেলার ক্যারাভ্যানটি আসে চট্টগ্রাম ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে । ২ জুন কুমিল্লা জেলা থেকে মোবাইলফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেডের আয়োজনে শুরু হয়েছে এই মেলা। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সাথে যৌথভাবে আয়োজিত মেলাটি চলবে মাসব্যাপী। আজ সোমবার এটি যাবে চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল মডেল হাইস্কুলে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সরকারের উদ্যোগকে সহায়তা করতে এবং সাধারণে মানুষের মধ্যে ইন্টারনেট সচেনতনতা তৈরী করতেই এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে বলে রবি থেকে জানানো হয়েছে।
চট্টগ্রাম কলিজিয়েট হাই স্কুলে ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নেন অনেক শিক্ষার্থী ও শিক্ষক। এ ক্যারাভ্যানে রয়েছে ২০ টি ট্যাবলেট পিসি। একসাথে ২০ জন এখানে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে। চট্টগ্রামের অন্য সব স্কুল শিক্ষার্থীরাও এতে অংশ নিয়েছে।
রবি’র এক্সিকিউটিভি ভাইস প্রেসিডেন্ট (কর্পোরেট, রেগুলেটরি ও লিগ্যাল ) মাহমুদুর রহমান বলেন, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মধ্যে ইন্টারনেট সচেতনতা তৈরী করতে আমরা এ মেলার আয়োজন করেছি। দেশের ৯ টি জেলার ২৫ টি স্থানে যাবে আমাদের এই ক্যারাভ্যান। বিনামূল্যে যে কেউ এখানে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছেন।
তিনি বলেন, গণ মানুষের মধ্যে ইন্টারনেট সম্পর্কে সচেতনতা তৈরীর মাধ্যমে সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের ভিশনকে সহযোগিতা করতে আমাদের এই উদ্যোগ। মানুষের ভেতরের শক্তিতে জাগিয়ে দেয়ার মাধ্যমে আমরা নতুন এক বাংলাদেশ গড়তে চাই। যেখানে প্রযুক্তির বৈষম্য থাকবে না।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply