এক ঝাঁক যুবকের উদ্যোগে নাঙ্গলকোটে নাইট স্কুল চালু

জামাল উদ্দিন স্বপন,কুমিল্লা প্রতিনিধি:–

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের ৮ নং জোড্ডা ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী নোয়াপাড়া গ্রামে নোয়াপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এলাকার যুবক তোফায়েল আহমেদ,সফিউল্যাহ,মেহেদী হাসান তুষার,বিল্লাল হোসেন দের উদ্যোগে ও এলাকার ইঞ্জি: আ: মুমিন,শাহজাহান ভূইয়া,মাস্টার মফিজ,মাস্টার বেলায়েত হোসেন,হাফেজ ছায়েদুল হক,মেম্বার গিয়াস উদ্দিন,আবু তাহেরের সাবির্ক তত্ত্বাবধানে স্কুলের যাত্রা শুরু হয়। ক্লাস দ্বিতীয় থেকে ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত অথ্যার্ৎ সন্ধ্যা মাগরিবের নামাজের পর থেকে রাত দশটা পর্যন্ত ছাত্র ছাত্রী দের পড়ানো হচ্ছে। বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে অংক ও ইংরেজি বিষয়ে। অধিকাংশই ছাত্র ছাত্রী নোয়াপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়,দক্ষিন শাকতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,চডিয়া আলিম মাদ্রাসা প্রাথমিক শাখা,বাইয়ারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী। যারা অর্থ ও বিভিন্ন কারনে পড়াশুনা থেকে বঞ্চিত,মূলত তাদেরকেই বিনা পয়সায় ও যতœ সহকারে পড়ানো হচ্ছে। উদ্যোক্তাদের একজন মেহেদী হাসান তুষার আমাদের প্রতিনিধি সাংবাদিক জামাল উদ্দিন স্বপনকে জানান ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত ফ্রি পড়াশুনার উদ্যোগ নিয়েছিলাম,কিন্তু বিদ্যুৎ,অর্থ ও বিভিন্ন কারন অকারনে শুরু করতে পারেনি,তবে শ্রীঘই শুরু করবো। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা,শিক্ষা অফিসার,উপজেলা চেয়ারম্যান,মাননীয় সংসদ সদস্য’র সুনজরে প্রতিষ্ঠানটি যদি আসে,তাহলে শতকরা ৭০% শিক্ষিতের এলাকা নাঙ্গলকোটের নোয়াপাড়া বিদ্যুৎ ও হাইস্কুল বিহীন জনপদটি শতকরা ১০০% শিক্ষিতে পরিনত হবে । যা সময়ের ব্যাপার মাত্র।যেখানে উদ্যোক্তার অভাব।এই গ্রামে বর্তমানে যুব সমাজের উদ্যোগে বর্তমান নাইট(সন্ধ্যাকালীন) স্কুল চালু হওয়া তো স্বপ্নের ব্যাপার। এতে এস এসসি পরীক্ষার্থী,এইচ এসসি পরীক্ষার্থী,অনার্স ও ডিগ্রী পড়–য়া ছাত্র ছাত্রী পাঠদানে সময় দিলে ও এলাকার সচেতন যুব সমাজ আশংকা করছে বিনা পয়সায় এই বয়সে সেবামূলক কাজ করা আর কতদিন চলবে,কতদিনই বা প্রতিষ্ঠানটি চলবে। এলাকার এক লোক জানান এটি যদি প্রশাসনিক ভাবে সহযোগিতা কিংবা তাদের রুল অনুযায়ী চালিত হতো,তাহলে এটি হতে পারে নাঙ্গলকোট উপজেলা তথা জেলা দক্ষিনের অন্যতম নাইট স্কুল গুলোর মডেল হিসেবে।যুগে যুগে এই এলাকার জন্মেছেন বহু খ্যাতিমান ব্যক্তি তাদের মধ্যেসংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয় সচিব ও সাবেক কিশোরগঞ্জ জেলা ডিসি মাহবুব আলম,নৌ বাহিনী স্কোয়াড্রন লিডার (অব:) আহসান উল্যাহ,আইটি ইঞ্জিঃ রাজীব,ইবনে সিনার ডাক্তার মোশাররফ হোসেন,চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ খোরশেদ আলম,সাবেক প্রধান শিক্ষক আমান উল্যাহ বি এস সি,নাঙ্গলকোট সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজার আ:সাত্তার,অগ্রনী ব্যাংকের সাবেক ম্যানেজার ইমামউদ্দিন,চট্রগ্রাম পানচুড়ি ফাযিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল নোয়াপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হাফেজ ছায়েদুল হক,বাংলাদেশ পোস্ট বিভাগের সাবেক মহাপরিচালক সহ বিভিন্ন হাইস্কুলের শিক্ষক ১০ জন,প্রাইমারী স্কুলের ৬-৭ জন,বর্তমানে গ্রামে অধ্যয়নরত দ্বিতীয় শ্রেনী থেকে উচ্চতর মাস্টার্স পর্যন্ত ৭৩০ জন,হাফেজ সংখ্যা ২০ জন,মাদ্রাসা শিক্ষক,আলেম ওলামা রয়েছে অর্ধ শতাধিক।এত সত্ত্বে ও অন্ধকারে নিমজ্জিত গ্রামটিতে স্বাধীনতা পরবর্তী ৪২ বছর ধরেই বিদ্যুৎ বিহীন অবস্থায় আছে গ্রামটি।তথ্য নিয়ে জানা গেছে,এলাকার বিত্তবানদের সহযোগীতার কিস্তির উপরে নোয়াপাড়া নাইট স্কুলে একটি সৌর বিদ্যুৎ বসানো হয়েছে,তবে এটি পুরোপুরি চাহিদা মেটাতে পারছে না,এক শিক্ষার্থী তো বলেই ফেলল- গ্রামে বিদ্যুৎ নাই,স্কুলে দেবে কোথেকে। তবে মাননীয় এমপি ২০০৮ সালে নিবার্চনের আগে ভোট চাইতে এসে প্রতিশূতি দিয়েছিলেন বিদ্যুৎ তিনি দিবেন,এবং কয়েকদিন আগে নোয়াপাড়া এলাকায় এক বিশাল উঠোন বৈঠক করেন,তাতেও তিনি এলাকাবাসীর দাবীর মুখে বলেন চলতি বছর মহাজোট সরকার ক্ষমতা হস্তান্তরের আগেই পুরো নোয়াপাড়া গ্রামে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করবো।” উক্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আ’লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন মেম্বার,তাজুল ইসলাম,৭ নং ওর্য়াড আ’লীগ সভাপতি ছায়েদুল হক,ছাত্রলীগ নেতা শাহজাহান সাজু,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আ: করিম মজুমদার,অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ,ডা: এহছাক,ছাত্রলীগ নেতা বিল্লাল,তোফায়েল প্রমুখ। একটি সূত্রে জানা গেছে নাঙ্গলকোট নোয়াপাড়া (সন্ধ্যাকালীন) নাইট স্কুল এর সার্বিক কর্মকান্ড শুনে পরিদর্শনে আসার আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা ইউ এনও এবং শিক্ষা অফিসার ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply