গেমঅন-ফ্র্যাঞ্চাইজির অনিয়ম, বিসিবির লুকোচুরি

ঢাকা:—
বিপিএল দ্বিতীয় আসর শেষ হওয়ার চার মাস পেরিয়ে গেলেও চুক্তি অনুযায়ী ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক, ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি ও গেমঅন স্পোর্টস লিমিটেডের কাছে পাওনা অর্থ আদায়ে ব্যর্থ বিসিবি। সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ, বিপিএলের এসব অনিয়ম ও নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে চায় বিসিবি। পাওনা আদায়ে তেমন কোনো তোড়জোড় নেই বিসিবির। এখন পর্যন্ত বোর্ডের পাওনা ৪১ কোটি টাকা ও ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক উদ্ধারে, বোর্ডের কর্মকাণ্ড চলছে ঢিলেঢালা গতিতে।

চুক্তি অনুযায়ী, টুর্নামেন্ট চলাকালীন ৫০ শতাংশ ও শেষ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে ক্রিকেটারদের পুরো পারিশ্রমিক প্রদানের কথা জানিয়েছিল বোর্ড। অথচ এখন পর্যন্ত কেবল দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি ৫০ শতাংশ ও বাকিগুলো ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাবদ পরিশোধ করেছে মাত্র ২৫ শতাংশ অর্থ। অন্যদিকে ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি বাবদ ২২ কোটি টাকা ও গেমঅন স্পোর্টস লিমিটেডের কাছে অন্যান্য ১৯ কোটি টাকা এখনও আদায় করতে পারেনি বিসিবি।

তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি ও গেমঅনের ইচ্ছেমাফিক আচরণকে- আর প্রশ্রয় না দেয়ার পক্ষে এবার কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে, এমনটাই দাবি বিপিএল চেয়ারম্যান অফজালুর রহমান সিনহার। এ সম্পর্কে নতুন বার্তা ডটকমকে সিনহা বলেন, “গেমঅনের ব্যাপারে আর নমনীয় হওয়ার সুযোগ নেই। বারবার তাগাদা ও সময় বাড়ানো স্বত্বেও পাওনা পরিশোধ করছে না তারা। আমরাও তাই কঠোর হচ্ছি।”

ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের গড়িমসির সঙ্গে টাকা পরিশোধে ‘অজুহাতের’ শেষ নেই গেমঅন মালিক এনায়েতুর রহমান বাপ্পির। দ্বিতীয় আসরের শুরুতে হঠাৎ পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের সরে দাঁড়ানো, আন্তর্জাতিক সংবাদ চ্যানেল অলজারিরার কাছে ফিড বিক্রয় করতে না পারায় বড় অংকের আর্থিক ক্ষতির কথা জানিয়ে সুবিধা নিয়ে চলেছেন বাপ্পি। তবে এজন্য বিপিএল কমিটি তাকে বোর্ড বারাবর লিখিতভাবে এসব সমস্যার কথা জানানোর অনুরোধ করলেও তিন মাসেও বোর্ডকে সে চিঠি দেননি তিনি।

এ আসরের শুরুতে এ্যাডহক কমিটি দায়িত্ব নেয়ার পর ফ্র্যাঞ্চাইজি ও গেমঅনের সঙ্গে স্বাক্ষরিত ত্রিপাক্ষিক চুক্তিতে ফ্র্যাঞ্চআইজি ফি ও ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক তোলার দায়িত্ব নিজেদের ঘাড়েই তুলে নেয় বোর্ড। আর ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি’র একটি অংশ গেমঅন পাবে বলেও স্বীকার করেন বিপিএল চেয়ারম্যান। তবে আগে গেমঅনকে তাদের বকেয়া পরিশোধের জন্য অনুরোধ করা হয় বোর্ড থেকে।

মৌখিকভাবে কয়েকবার তাগাদা দেয়ারপর মার্চের ২০ তারিখ গেমঅনকে টাকা প্রদানের প্রথম অনুষ্ঠানিক ডেট-লইন দেয় বিপিএল কমিটি। এরপর আরও আড়াই মাস শেষ হতে হতে চললেও, আজ পর্যন্ত এক পয়সাও তাদের কাছ থেকে আদায় করতে পারছে না বিসিবি। এ প্রসঙ্গে আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, “পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের না আসা, আল জাজিরার কাছে ফিড বিক্রয় করতে না পারায় ক্ষতির কথা জানিয়ে তারা আমাদের কাছে কিছু ছাড় চাইছে। তবে এ নিয়ে বোর্ড বারবার লিখিতভাবে আবেদনের অনুরোধ জানালেও এখন পর্যন্ত এ কাজটি করেনি তারা। এ ব্যপারে গেমঅনকে আর ছাড় দিতে চাইছি না আমরা। শুধু মালিকানা বাতিলই নয় টাকা আদায়ের জন্য আইনি লড়াইয়ের প্রস্তুতিও নিয়ে রেখেছি আমরা।”

পরিস্থিতি ভাল নয়, এ কথা সত্য বলে স্বীকার করলেন বিপিএলের গ্লাডিয়েটর্স অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তিনি বললেন, “শুনেছি আমাদের দল থেকে ৫০ শতাংশ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। কিন্তু বোর্ডের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত আমরা ২৫ শতাংশ টাকা হাতে পেয়েছি। আশা করছি বোর্ড আমাদের পাওনা বাকি অর্থও দ্রুত পরিশোধের উদ্যোগ নেবে।”

এ সম্পর্কে খুলনার হয়ে খেলা শাররিয়ার নাফীস বলেন, “ফ্র্যাঞ্চাইজির পক্ষ থেকে আমাদের ৫০ শতাংশ সম্মানী দেয়া হয়েছে। এ মাসেই আরেকটি পেমেন্ট পাওয়ার কথা রয়েছে। এখন সবকিছুই নির্ভর করছে বোর্ডের ওপর।”

Check Also

কুমিল্লার বিপক্ষে ১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে রাজশাহী

ক্রীড়া প্রতিবেদক :– বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে রাজশাহী কিংসকে ১৫৩ রানের টার্গেট দিলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ...

Leave a Reply