জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত কর্মকর্তা লাঞ্চিত : নাঙ্গলকোটে ডাক্তারের অবহেলায় দশ মিনিটে ২ রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

মোঃ আলাউদ্দিন, নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি :–

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলায় দশ মিনিটের ব্যবধানে ২ রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, গত সোমবার ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী মহানগর গোধুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি নাঙ্গলকোট রেলওয়ে ষ্টেশন ফ্ল্যাটফর্ম অতিক্রমকালে কাশিপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ৮ বছরের শিশু পুত্র মোঃ সাকিবকে ধাক্কা দিলে সে রেল লাইনের পাশে ছিটকে পড়ে মারাত্বক আহত হয়। মুমূর্ষ অবস্থায় স্বজনরা সাকিবকে নাঙ্গলকোট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কোন ডাক্তারকে উপস্থিত পাওয়া যায়নি। জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত অবস্থায় কমিউনিটি মেডিকেল উপ-সহকারী মোঃ আবু তাহেরকে ডাক্তার আনতে বললে সে তখনকার কর্তব্যরত ডাঃ আশিক সালাউদ্দিনকে বার বার ফোন করলেও তিনি রোগী দেখতে আসেনি। কর্তব্যরত অবস্থায় তিনি নিজ বাসায় প্রাইভেট রোগী নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। তখন রোগীর স্বজনরা হাসপাতালে কোন ডাক্তারকে না পেয়ে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত কর্মকর্তা আবু তাহেরকে মারধর করে লাঞ্চিত করে। পরে ডাঃ আবদুল মালেক রোগীর অবস্থা আশংকা জনক দেখে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কুমিল্লা হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করে। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পূর্বে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে আহত আতাঘরা গ্রামের আনা মিয়ার স্ত্রী সুক্কুনি বেগম মুমূর্ষ অবস্থায় দীর্ঘক্ষণ জরুরী বিভাগে পড়ে থাকার পর কোন চিকিৎসা না পেয়ে মারা যায়। নিহত সাকিবের পিতা নুরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, ডাক্তারদের অবহেলায়, বাসায় এবং প্রাইভেট ক্লিনিকে রোগী দেখার রমরমা ব্যবসার কারণে সাধারণ রোগীরা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপযুক্ত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply