এম.কে আনোয়ারকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দের নিন্দা : কাল তিতাসে বিক্ষোভ মিছিল

নাজমুল করিম ফারুক :–

সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম.কে আনোয়ারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। এর প্রতিবাদে তিতাস উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং কাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বিক্ষোভ কর্মসূচীর ঘোষণা দেন।
উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মনিরুল হক তপন ভূঁইয়া রূপসী বাংলাকে জানান, মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলায় বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য এম.কে আনোয়ারকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং তাঁর মুক্তি দাবী করছি। তিনি আরো জানান, আগামীকাল (আজ) মঙ্গলবার সকাল ১০টায় উপজেলার কড়িকান্দি বাজারস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। অনতিবিলম্বে এম.কে আনোয়ারকে মুক্তি না দিলে প্রয়োজনে উপজেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিলের চেয়েও কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে। এম.কে আনোয়ারকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে কুমিল্লা (উত্তর) জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান সরকার, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন সরকার, সহ-সভাপতি আক্তারুজ্জামান আক্তার, আলী হোসেন মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গণি ভূঁইয়া, উপজেলা যুবদলের সভাপতি তোফায়েল হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মনির হোসেন ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন মোল্লা, জাসাসের সভাপতি মেহেদী হাসান সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মো. সামির হোসেন, উপজেলা শ্রমিকদলের আহ্বায়ক আদিলুর রহমান আদিলসহ বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা ও অনতিবিলম্বে তাঁর মুক্তি দাবী করেন।
উল্লেখ্য, গত ৬ মে এম.কে আনোয়ার শাপলা চত্বর ও বায়তুল মোকাররম মসজিদ এবং আশপাশের এলাকায় ভাংচুর, ধর্মীয় গ্রন্থে অগ্নিসংযোগ ঘটনায় স্বেচছাসেবক লীগ নেতা দেবাশীষকে দায়ী করে বক্তব্য দেন। পরদিন ৭ মে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা দেবাশীষ সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিমের আদালতে মামলা করেন। পরে ওইদিন ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিম হাসিবুল হক তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর হাইকোর্ট থেকে নেওয়া দু’সপ্তাহের জামিন শেষে গতকাল ২৭ মে সোমবার সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করে আরো জামিনের আবেদন করেন তিনি। কিন্তু বিচারক ঢাকা মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) হারুন অর রশিদ আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আদালতে এম.কে আনোয়ারের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদিন ও ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। এসময় আদালত প্রাঙ্গণে তিতাস ও হোমনা উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের অনেক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply