সরাইলে পুত্রবধূর ছুরিকাঘাতে শ্বাশুড়ি গুরুতর আহত : পুত্রবধূকে আটক করেছে পুলিশ

আরিফুল ইসলাম সুমন, ব্রাক্ষণবাড়িয়া প্রতিনিধি :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে পুত্রবধূ ইয়াছমিন আক্তারের (২২) উপর্যপুরী ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন শ্বাশুড়ি শরীফা বেগম (৪৭)। মাকে বাঁচাতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে আহত হন শারমীন বেগম (২৫)। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শরীফা বেগমকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে সরাইল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুত্রবধূ ইয়াছমিনকে আটক করে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রতিবেশীরা জানান। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালিকচ্ছ বাবুর দিঘীর পশ্চিমপাড়া এলাকার কৃষক আব্দুর রউফ মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শারমীন বেগমের পাঁচ বছর বয়সী ছেলে ইউসুফ তার মামা নাসির মিয়ার ঘরে ভাত খেতে যায়। নাসির ও তার স্ত্রী ইয়াছমিন তাদের ভাগিনাকে ভাত না দিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়। এ নিয়ে শারমীন তার ছোট ভাই নাসিরের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। সুর-চিৎকারে তাদের মা শরিফা বেগম এগিয়ে এসে দুই ভাই বোনকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। এসময় ইয়াছমিন স্বামীর পক্ষ নিয়ে শ্বাশুড়িকে আপত্তিকর কথাবার্তায় গালাগাল করতে থাকে। একপর্যায়ে বাড়ির কর্তা কৃষক আব্দুর রউফ একটি লাঠি হাতে নিয়ে ঝগড়ায় লিপ্ত সকলকে ভয়ভীতি দেখানো অবস্থায় নাসির তার পিতার (আব্দুর রউফ) গলা চেপে ধরে। অপরদিকে ইয়াছমিন ঘর থেকে ছুরি নিয়ে শ্বাশুড়ি শরিফা বেগমকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। এসময় মাকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন শারমীন।
অভিযুক্ত পুত্রবধূ ইয়াছমিন বলেন, ঝগড়াঝাটির একপর্যায়ে এ ঘটনা ঘটেছে। আমি শ্বাশুড়ির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিব।
গ্রামের বাসিন্দা মো. ইসমাইল মিয়া বলেন, এই পরিবারে দীর্ঘদিন ধরে কলহ লেগে আছে। কিছুদিন আগে এলাকার ইউপি সদস্যসহ মাতব্বররা এসে তাদের বিরোধ নিস্পত্তির চেষ্টা করেন।
হাসপাতালের বিছানায় আহত শরীফা বেগম বলেন, একসময় আমাদের সংসারে অভাব-অনটন ছিল। নিজে না খেয়ে ছেলেকে খাইয়ে বড় করেছি। শখ করে ছেলেকে বিয়ে করিয়ে ঘরে পুত্রবধূ এনেছিলাম। এখন এই ছেলে পিতার গলা চেপে ধরে। আর শখের পুত্রবধূ ছুরি চালিয়ে আমার জীবন শেষ করে দিয়েছে। আমি এ বিচার আল্লাহ্তালার দরবারে দিয়েছি।
সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম কুমার চক্রবর্তী বলেন, খবর পেয়ে ইয়াছমিনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় কেউ এখনো থানায় অভিযোগ না করায় তাকে ৫৪ ধারায় আদালতে প্রেরন করেছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply