সংবাদ প্রকাশের জের : নাসিরনগরে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকায় পাঁচ চিকিৎসককে শোকজ

আকতার হোসেন ভুইয়া,নাসিরনগর :–

কুমিল্লারওয়েব ডটকম সহ একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় “নাসিরনগর হাসপাতালে ডাক্তার না আসার প্রতিবাদে হৈ চৈ” শিরোনামে রবিবার সংবাদ প্রকাশের পর দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সরফরাজ খান চৌধুরী আকস্মিক পরির্দশনে আসেন । এসময় তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাঁচ চিকিৎসককে হাসপাতালে অনুপস্থিত পান। এতে ৫ চিকিৎসককে শোকজসহ বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিচ্ছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সরফরাজ খান চৌধুরী। রবিবার দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় মনিটরিংকালে তাদেরকে কর্মস্থলে না পাওয়ায় জুনিয়র কনসালটেন্ট(অর্থো-সাজার্রী) ডাঃ আবদুল হালিম, জুনিয়র কনসালটেন্ট(চর্ম ও যৌন) তাবিন্দা আন্জুম, মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ জামাল উদ্দিন আহমেদ,মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ রাবেয়া আক্তার ও মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ তামান্নাকে শোকজ করা হয়েছে। এতে ৭দিনের মধ্যে জবাব দেয়ার কথা বলা হয়েছে। তাদের শোকজের বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সরফরাজ খান চৌধুরী জানান প্রয়োজনে তাদের বেতন ভাতা বন্ধ রাখা হবে। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আবু ছালেহ মোহাম্মদ মুসা খান ৫ ডাক্তারের অনুপস্থিত থাকার কথা স্বীকার করে জানান, সিভিল সাজর্ন মহদোয়ের মনিটরিংকালে তাদের অনুপস্থিতির বিষয়ে অবগত করা হয়। উল্লেখ্য, শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অনুপস্থিতির কারণে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করে আগত রোগীরা হৈ-চৈ শুরু করেন। পরে আগত রোগীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আবু ছালেহ মোহাম্মদ মূসা খানকে অবগত করলে তিনি রোগীদেরকে চিকিৎসা দেয়া বিষয়টি নিশ্চিত করলে রোগীরা শান্ত হয়। এ বিষয়ে কুমিল্লাওয়েব ডটকম, একটি জাতীয় দৈনিক ও একাধিক স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে নাসিরনগরে তোলপাড় শুরু হয়। একাধিক সূত্র জানায় এ ৩ জন ডাক্তার প্রায়ই হাসপাতালে অনুপস্থিত থাকার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। তারা সপ্তাহে ২ দিন হাসপাতালে হাজিরা দিয়ে থাকেন। কেউ কেউ বিএম এর নাম ভাঙিয়েও গড় হাজিরা দিয়ে থাকেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply