তিতাসে ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস :–

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় এ বছর ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। উপজেলার দুইদিকে কাঁঠালিয়া ও গোমতী নদীবেষ্টিত নিম্নাঞ্চল হওয়ায় এ এলাকার প্রায় ৯০ ভাগ ফসলি জমি বছরের চার মাস বর্ষা বা বন্যার পানিতে ডুবে থাকে। ফলে এ অঞ্চলের ফসলি জমিতে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণ পলিমাটি পড়ায় জমির উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধি পায়। এ জন্য অন্যান্য উপজেলার তুলনায় তিতাসে প্রতি বছর ইরি-বোরো ধানের ফলন ভালো হয়। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কৃষক ও কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা বাম্পার ফলনের আশা করছেন।
তিতাস উপজেলা নিম্নাঞ্চল ও বন্যাকবলিত হওয়ার কারণে এ উপজেলার আবাদযোগ্য জমির প্রায় ৮০ ভাগ জমিতে ইরি-বোরো ধানের চাষ করা হয়। অনুকূল আবহাওয়া থাকায় এবং কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে ঠিকমত তদারকির কারণে উপজেলার সাতানী, জগতপুর, বলরামপুর, কড়িকান্দি, কলাকান্দি, ভিটিকান্দি, নারান্দিয়া, জিয়ারকান্দি ও মজিদপুর ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ মাঠের ইরি-বোরো ধান পাকতে শুরু করেছে। অনেক এলাকায় ধান কাটা শেষও হয়েছে।
উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবদুর রব জানান, এ বছর উপজেলায় ইরি-বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল হাইব্রিড ২০ হেক্টর ও উফসী ৭০৪০ হেক্টর জমিতে। আবাদ করা হয়েছে হাইব্রিড ২০ হেক্টর ও উফসী ৭০৬০ হেক্টর জমিতে। যার মধ্যে হাইব্রিডের আওতায় এসিআই-১, হিরা এবং উফসীর আওতায় বিআর-৩, বিআর-১৬, ব্রি-২৮, ব্রি-২৯, ব্রি-৪৫ ও ব্রি-৫০ জাতের ধান চাষ করা হয়। তিনি আরো জানান, হাইব্রিড হেক্টর প্রতি ৪.৭৭ টন এবং উফসী ৩.৮১ টন ধানের ফলন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে শীলাবৃষ্টি ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে উফসী জাতের ধান হেক্টর প্রতি আরো বাড়তে পারে।
উপজেলা কৃষি অফিসার মো. কামরুল হাসান মিতু জানান, কৃষি কর্মকর্তাদের নিয়মিত তদারকি এবং কৃষকদের আগ্রহে প্রতিবছর এ অঞ্চলে ইরি-বোরোর আবাদ বাড়ছে। এ অঞ্চলে উৎপাদিত ধান এলাকার খাদ্য চাহিদা মিটিয়ে অন্যান্য জেলা-উপজেলায় রফতানি করা হয় বলে তিনি জানান।
সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এবং কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এ বছর রোগবালাই এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হওয়ায় বোরোর বাম্পার ফলনের আশা করছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply