নাঙ্গলকোটে দারিদ্রতা দমাতে পারেনি রিক্সা চালকের মেয়ে রেহানাকে

কামাল হোসেন জনি :–

নাঙ্গলকোটে চলতি এস এস সি পরীক্ষায় দারিদ্রতাকে জয় করে রিক্সা চালকের মেয়ে রেহানা আক্তার বিজ্ঞান বিভাগে জি পি এ-৫ অর্জন করেছেন। দারিদ্রতার পাশাপাশি কঠোর পরিশ্রম এবং মনোবলই তার সফলতার পেছনে কাজ করেছে বলে রেহানা আক্তার জানান। রেহানা আক্তার উপজেলার মাহিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জি পি এ-৫ পাবার গৌরব অর্জন করেন। তার গ্রামের বাড়ি রায়কোট ইউপির উত্তর মাহিনী। তার বাবা রিক্সা চালক মোঃ হোসেন সারাদিনের হাড় –ভাঙ্গা খাটুনি করে মেয়ের পড়ালেখার খরচ জুগিয়েছেন। বিভিন্ন সময় বাবার অক্ষমতায় তার আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এগিয়ে এসেছেন। বাড়িতে একটি মাত্র ঘরে ছোট দু‘ভাই এবং মা-বাবা নিয়ে তাদের সংসার। বাড়িতে লেখাপড়ার পরিবেশ না থাকায় নানার বাড়িতে লেখাপড়া করতেন। পরীক্ষায় ফরম ফিলাপের টাকা না থাকায় তার খালাতো ভাই তার সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন। বর্তমানে দরিদ্র রিক্সা চালক বাবার পক্ষে একাদশ শ্রেণীর লেখাপড়ায় এগিয়ে নেয়া কোনভাবেই সম্ভব নয় বলে রেহানা আক্তার জানান। এছাড়া, নানার বাড়ির লোকজনের সামর্থও নেই সামনের দিকে তার লেখাপড়ার খরচ এগিয়ে নেয়া। রেহানা আক্তার তার ভবিষ্যত নিয়ে চোখে-মুখে অন্ধকার দেখছেন। তার ইচ্ছা ভালো একটি কলেজে একাদশ শ্রেণীতে লেখাপড়া করা। ভবিষ্যতে ডাক্তার হবার তার ইচ্ছা রয়েছে। কিন্তু দারিদ্রতা তার ভবিষ্যত পড়ালেখার ক্ষেত্রে অন্যতম বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সে একাদশ শ্রেণীতে লেখাপড়ার খরচ নির্বাহে সমাজের বিত্তশালীদের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply