আশুগঞ্জে ধর্ষিতার সংবাদ সম্মেলন : ন্যায় বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ধর্ষিতা বিধবা ন্যায় বিচার চেয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে। ধর্ষণের মামলার অভিযুক্ত আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় পুলিশ রহস্যজনক কারণে আদালতে চুড়ান্ত প্রতিবেদনে ধর্ষকদের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে বলে আজ বুধবার সকালে আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে ধর্ষিতা অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে ধর্ষিতা (কুলসুম বেগম) বলেন, ধর্ষণের শিকার হয়ে মামলা করেছি। আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় আর আমি দরিদ্র হওয়ায় থানার কাছে ন্যায়বিচার পাইনি। মামলার চুড়ান্ত প্রতিবেদনে ধর্ষক লাল মিয়াকে বাদ দেয়ায় আমি ও আমার পরিবার এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। আমার পরিবারের সদস্যদের মাঝে এখন বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক। আমরা মুখ খুলতে পারছিনা। তিনি অভিযোগ করেন মামলার চুড়ান্ত প্রতিবেদনে আসামীদের নাম বাদ দেয়ার জন্য মোটা অঙ্কের অর্থ ভাগবন্টন হয়েছে পুলিশসহ বিভিন্ন মহলে। তাই ন্যায়বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইলেন তিনি। বিধবা কুলসুম কান্নাজড়িত কন্ঠে আরও বলেন সাংবাদিকদের লেখার মাধ্যমে আমার মামলা নিয়েছিল পুলিশ। এখনও আশা করি আপনাদের লেখার মাধ্যমে আমি ন্যায়বিচার পাব। সংবাদ সম্মেলনে তার পরিবারের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু সায়েদ লাল মিয়ার কাছে তার ভাতিজা আমির হোসেনের ধষর্ণের বিচার চাইতে এসে কুলসুম পুনরায় ধর্ষণের শিকার হন। ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে লাল মিয়া ও তার ভাতিজা আমির হোসেনের বিরুদ্ধে গত ৩০ জানয়ারি আশুগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ে করেন। আশুগঞ্জ থানা পুলিশ গত ১৮ এপ্রিল আদালতে ওই মামলার চুড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply