লাকসামের বিজরায় চাপাতিসহ এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ

কামরুজ্জামান জনী, কুমিল্লা:–

লাকসাম উপজেলার বিজরা বাজারে আজ বুধবার শাহাদাত হোসেন (৩২) নামে এক যুবককে স্থানীয় জনতা আটক কওে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। জানা গেছে ওই যুবক নেশাকরে বাজারে এসে গাড়ি ভাংচুর ও বাজার পাহারাদারকে মারধর করেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, লাকসাম উপজেলার বড় বিজরা গ্রামের মৃত হাফেজ আহাম্মেদ এর পুত্র শাহাদাত হোসেন নেশাগ্রস্ত হয়ে বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ করে আসছিল। ঘটনার দিন ভোরে নেশাগ্রস্ত হয়ে লাঠি নিয়ে বিজরা বাজারে এসে হরতালে গাড়ি চলবে না বলে কয়েকটি পিকআপ ভ্যান ভাংচুর করে। এসময় বাজার পাহারাদার শাহআলম, আলমগীর বাধা দিলে তাদেরকেও মারধর করে। শাহাদাত পূনরায় বাড়িতে গিয়ে চাপাতি এনে কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কে অবস্থান নিলে বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার তাকে ধাওয়া করলে তার উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে স্থানীয় জনতা তাকে উত্তম মধ্যম দিয়ে লাকসাম থানার পুলিশের এ. এস.আই ইকবাল হোসেন ও এ. এস.আই বাসারের কাছে চাপাতিসহ সোপর্দ করে। স্থানীয় বাজারের ব্যাবসায়ী সাধারন জনগন অনেকেই জানিয়েছেন ভোরে পুলিশের হাতে শাহাদাতকে চাপাতি সহ তুলে দেওয়া হয়। রহস্য জনক কারনে পুলিশ শাহাদাতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়। বর্তমানে বাজারের ব্যবসায়ী ও সাধারন জনগনের মধ্যে অনেকটা আতংক বিরাজ করছে, এছাড়াও শাহদাতের বিরুদ্ধে মহিলা সংক্রান্ত বিষয় ও তার বিরুদ্ধ নানা অভিযোগ উঠেছে এলাকায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শাহাদাতের বিরুদ্ধে কোন মামলা হয়নি। এ ব্যাপরে লাকসাম থানার অফিসার্স ইনচার্জ জানান আমরা ভোরে শাহাদাত কে থানায় নিয়ে আসছি পরে শারিরিক অবস্থা খারাপ দেখে তাকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় তবে আমরা বিষয়টি তাদের পারিবারিক বিষয় ঝামেলার সূত্র ধরে এ ঘটনা ঘটেছে তবে আমরা কাউকে গ্রেফতার করিনি শুধু মাত্র চিকিৎসার জন্য তাকে নিয়ে এসেছি। এ ব্যাপারে অবিযুক্ত শাহাদাত ও তার পরিবারের সাথে মোবাইল ফোনে অনেকবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply