কুমিল্লার মুরাদনগরে ইউএনও’র বদলীর খবরে এলাকাবাসীর উল্লাস ও মিষ্টি বিতরণ

মো. হাবিবুর রহমান, মুরাদনগর (কুমিল্লা):–
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বহু আলোচিত-সমালোচিত নাজমা বেগমকে খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে পদায়নের জন্য বদলী হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের মাঠ প্রশাসন-৫ এর স্বারক নং ০৫.০০.০০০০.১৪১.১৯. ১১৯. ১৩-৫৯, তারিখ ২২/০৪/২০১৩ইং মূলে সিনিয়র সহকারী সচিব মো. রেয়াজুল হকের স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। উক্ত বদলীর খবর এলাকাবাসীর মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা স্বস্তির নিঃস্বাস ফেলাসহ গত দু’দিন ধরে আনন্দে আত্মহারা হয়ে মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা সদরের বিভিন্ন স্থানে মিষ্টি বিতরণ করতে দেখা গেছে। তবে তাঁর বদলী ঠেকাতে একটি কুচক্রীমহল সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের নিকট জোর তদ্বির চালাচ্ছে বলে ইউএনও’র বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। ইউএনও নাজমা বেগম ইতিপূর্বে আরো দু’বার বদলী হলেও অদৃশ্য ক্ষমতার খুটির জোরে বহাল তবিয়তে রয়ে যান। তিনি এমনই ক্ষমতাবান ও প্রভাবশালী যে, ইচ্ছে করলেই কেই তাকে বিদায় করার ক্ষমতা রাখেন না। ফলে বার বার বদলীর পরও যথাস্থানে থেকে নির্বিঘেœ দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে বনে যাচ্ছেন কোটিপতিতে। ইউএনও’র এহেন কর্মকান্ড নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় ফলাও করে একাধিকবার সংবাদ প্রকাশ হলেও রহস্যজনক কারণে টনক নড়েনি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের। ফলে বাধ্য হয়েই তিনি যার পর নাই মনে করে একের পর এক দেদারছে অপকর্ম করে বেড়াচ্ছেন। ইউএনও নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে প্রকল্পের নামে অবৈধ ভাবে উত্তোলন করে টাকা আত্বসাৎ, বিভিন্ন প্রকার দুর্নীতি, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার রয়েছে। তাঁর অপকর্মের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্থানে কয়েকশ অভিযোগ করা হলেও এখনো বহাল তবিয়তে রয়েছেন। ফলে মুরাদনগরের প্রশাসনিক, রাজনৈতিক ও সামাজিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবী লোকজনের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ক্ষুব্ধএলাকাবাসী সরেজমিন তদন্তসাপেক্ষে ইউএনও নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়াসহ অনতিবিলম্বে মুরাদনগর থেকে প্রত্যাহার করার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply