কুমিল্লায় আ.লীগের সঙ্গে গোলাগুলিতে বিএনপিকর্মী নিহত

মোঃ কামরুজ্জামান জনি, কুমিল্লা :–

কুমিল্লার তিতাসের শাহপুরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে দেলোয়ার হোসেন দেলু (৩৬) নামের এক বিএনপিকর্মী মারা গেছেন। নিহত দেলু উপজেলার শাহপুর গ্রামের রজব আলীর ছেলে।
এ সময় উভয় পক্ষের ১২ জন গুলিবিদ্ধসহ ২০ জন আহত হয়েছেন। উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের শাহপুর গ্রামে
রোববার রাত সোয়া ১টা থেকে ভোর সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ সংঘর্ষ চলে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের শাহপুর গ্রামে উপজেলা বিএনপি নেতা ফারুক চেয়ারম্যান গ্রুপ ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম শান্তি গ্রুপের মধ্যে আদিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে রাতে দু’গ্রুপ টোটা, বল্লম, দা, ছোরা, বাঁশের লাঠি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এ সময় দু’গ্রুপের গোলাগুলিতে বিএনপিকর্মী দেলোয়ার নিহত হন। এ ঘটনায় ১২ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন ২০ জন। পরে দাউদকান্দি ও তিতাস থানা পুলিশ এবং র‌্যাব সদস্যরা এলাকায় গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নবীর হোসেন বলেন, ‘সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও ১২ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। খবর পেয়ে ভোরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখানে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’ বিএনপি নেতা ফারুক চেয়ারম্যান বলেন, ‘শান্তির বাহিনী বিনা কারণে আমাদের লোকদের ওপর হামলা করে। এতে দেলোয়ার হোসেন দেলু নামে একজন নিহত হয়েছেন এবং আমাদের পক্ষের আরও ১০ জন আহত হয়েছেন।’ অপরদিকে আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম শান্তি বলেন, ‘ফারুক চেয়ারম্যানের বাহিনী গুলি করে আমার লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছে।’

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply