লাকসামে সরকারি জায়গার গাছ কর্তন

লাকসাম প্রতিনিধি:–
কুমিল্লার লাকসামে জামায়াতে ইসলামীর এক নেতা সড়কের পাশে অর্ধশত বছরের পুরনো সরকারি দুইটি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ছাড়া, জামায়াতের ওই নেতা সরকারি খাল দখলেরও চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং ভূমি অফিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে কাটা গাছের অংশগুলো উদ্ধার এবং খাল দখলের চেষ্টায় বাধা প্রদান করেছেন ।
জানা যায়, লাকসাম উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. মো. আবদুল মোবিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সড়কের পাশে প্রায় অর্ধশত বছরের পুরনো একটি কৃষ্ণচুড়া এবং একটি রেইনটি গাছ কেটে ফেলে। রোববার সকালে কাটা গাছগুলো ভটভটিতে করে নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় খবর পেয়ে লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহগীর আলম ঘটনাস্থলে গিয়ে কাটা গাছের অংশগুলো উদ্ধার করেন।
ইউএনও জানান, গাছগুলো কুমিল্লা জেলা পরিষদের জায়গায় হওয়ায় তাৎক্ষনিক সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। এই ব্যাপারে কুমিল্লা জেলা পরিষদ অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ওইদিন দুপুরে কুমিল্লা জেলা পরিষদের সার্ভেয়ার মো. জহিরুল কাইয়ুম ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে। এই মূহুর্ত্যে কিছু বলা যাবে না।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক লোক জানান, জেলা পরিষদের সার্ভেয়ারের সঙ্গে অভিযুক্ত ওই জামায়াত নেতার অনৈতিক লেনদেনের কারণে সার্ভেয়ার বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।
কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রশাসক মো. গোলাম ফারুক জানান, সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে একজন সার্ভেয়ার পাঠানো হয়েছে। তাঁর দেওয়া প্রতিবেদন পেলে এই ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এই ব্যাপারে লাকসাম উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. মো. আবদুল মোবিনের মুঠোফোনে জানান, তিনি তাঁর জায়গার গাছ কেটেছেন, সরকারি জায়গার গাছ কাটেননি। তাছাড়া, খাল দখলের ব্যাপারে তিনি বলেন, ওই জায়গা তিনি জেলা পরিষদ থেকে ইজারা নিয়েছেন।

Check Also

দাউদকান্দিতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

হোসাইন মোহাম্মদ দিদার :কুমিল্লার দাউদকান্দিতে শান্তা বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ...

Leave a Reply