প্রধান মন্ত্রী উদ্ভোধন করলেন ৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবন

সৈয়দ আহাম্মদ লাভলুঃ–
শনিবার ২০ এপ্রিল শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুমিল্লা সফরে এসে ২৪ টি প্রকল্পের উদ্ভোধন ও দুইটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এর মধ্যে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবন রয়েছে। তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কুমিল্লা-৫ এর সংসদ সদস্য সাবেক আইনমন্ত্রী এডভোকেট আবদুল মতিন খসরুসহ ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় অত্যন্ত মনোরম পরিবেশে নির্মিত ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটিকে ২০০৯ সালে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। ৫ কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত ১৯ শয্যা বিশিষ্ট নতুন ভবনের নির্মান কাজ শেষ হয় গত ২০১০ সালে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান যথাসময়ে কাজ সম্পন্ন করে ভবনটি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দিলেও নানা জটিলতার কারনে দীর্ঘ আড়াই বছরেও ভবনটির কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। তিনতলা নতুন ভবনটির সাথে পূর্বের ভবনে চলাচলের জন্য রয়েছে বিশাল করিডোর। রোগীদের জন্য রয়েছে ১৯ শয্যা বিশিষ্ট নতুন বিশাল কক্ষ। বর্তমানে রোগীদের সংখ্যা বেশী হলে মেঝেতে বিছানা করে রোগীরা অনেক কষ্টে দিনাতিপাত করতে হয়। ভবনটি উদ্ভোধন হলে রোগীদের বেড নিয়ে সমস্যায় পড়তে হবে না বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। নতুন এ বিশাল ভবনে আছে রোগীদের জন্য ৩ টি কেবিন, তিনটি অপারেশন থিয়েটার, এর মধ্যে একটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত, লেবার ডেলীভারী কক্ষ ২টি, মেডিকেল অফিসার ও কনসালটেন্টদের জন্য রয়েছে বেশ কয়েকটি কক্ষ। সুবিশাল কনফারেন্স রুম, রিসিপসন কক্ষ, ফার্মেসী, অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধাসহ একটি ভবন। বর্তমানে হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার, আবাসিক মেডিকেল অফিসার, সহকারী ডেন্টাল সার্জন, কনসালটেন্ট, ইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসার, ওয়ার্ডের জন্য কর্মরত মেডিকেল অফিসার, সেবিকা, দারোয়ান, সুইপার, নাইটগার্ড, অফিস সহকারী, কম্পিউটার অপারেটরসহ ৩৫টি পদ এখনো শুন্য পরে আছে। এব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এমএ জাহের বলেন, ইতিমধ্যে জনবল সংকটের কথা মাননীয় সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী এডভোকেট আবদুল মতিন খসরুকে অবহিত করেছি। শুন্য পদগুলি পুরন হলে সেবার মান আরও অনেক বৃদ্ধি পাবে। সাবেক মন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু এমপির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ার বিভিন্ন দাবিগুলো লিখিত আকারে পেশ করেছি। এর মধ্যে আছে হাসপাতালের শুন্যপদগুলি পুরন ও বিভিন্ন যন্ত্রপাতিসহ ফার্ণিচার সরবরাহ। গ্যাস সরবরাহ, প্রতিটি গ্রামে বিদ্যুতায়ন, রাস্তা, ব্রীজ-কালবার্ডসহ এলাকার উন্নয়নে পর্যাপ্ত পরিমানে বরাদ্ধ ঘোষনা করা। তিনি আনন্দের সাথে ঘোষনা করেন ইতিমধ্যে বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের জন্য প্রধান মন্ত্রী অনুমোদন করেছেন, এখন শুধু টেন্ডারের অপেক্ষা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply