কুমিল্লার চান্দিনায় মহারং-বাগুর এলাকাবাসীর সংঘর্ষে রণক্ষেত্র; পুলিশ-কাউন্সিলরসহ আহত ১২

মাসুমুর রহমান মাসুদ, চান্দিনা:–
চান্দিনায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে উপজেলার মহারং ও পাশ্ববর্তী দেবিদ্বার উপজেলার বাগুর এলাকাবাসীর সংঘর্ষে চান্দিনা বাস স্টেশন ও স্টেশন রোড এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। ওই ঘটনায় চান্দিনা থানার এক পুলিশ সদস্য, পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নূরুল ইসলাম মুন্সীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১২ জন আহত হয়। এসময় দুষ্কৃতকারীরা নিরীহ ব্যবসায়ীদের দোকান-পাট ভাংচুর ও লুটপাট করে। চান্দিনা বাজারের দত্ত মেডিকেল হল, তানিয়া সুজ, নূর বেকারীসহ বিভিন্ন দোকান-পাট ভাংচুর করা হয় এবং আওয়ামীলীগ নেতা মো. বাহারুল ইসলাম বাহার মিয়ার মুদি দোকানে ভাঙচুর ও লুট-পাট করা হয় বলে তিনি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন। দুষ্কৃতকারীরা চান্দিনা বাসস্টেশন এলাকায় একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এছাড়া বেশ কিছু পেট্রোল দিয়ে তৈরী হাতবোমা ফুটিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ ঘটনায় চান্দিনা বাজারে আতংক ছড়িয়ে পড়লে দোকান-পাট বন্ধ করে দেয় ব্যবসায়ীরা।
বুধবার (১৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ওই সংঘর্ষ শুরু হয়। রাতে ঘটনস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। প্রায় দুই ঘন্টা পর পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে। রাত সোয়া ৯টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সংঘর্ষ থামলেও এলাকাজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছিল।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মহারং গ্রামের রুহুল আমিন, লিটন, শাহিন, হেলাল, জালাল, সেলিম ওই এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নূরুল ইসলাম মুন্সী ও বাগুর গ্রামের রহমানসহ কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছে। আহতদের চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে ওই ঘটনায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন ও দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে আসেন।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, বুধবার বিকেলে চান্দিনা পালকি সিনেমা হল সংলগ্ন ইন্দ্রারচর এলাকায় একটি ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে চান্দিনার মহারং এলাকার পৌর কাউন্সিলর হাজী নূরুল ইসলাম এর ছেলে শরীফ ও একই গ্রামের মাসুদ এর সাথে পাশ্ববর্তী দেবিদ্বার উপজেলার বাগুর গ্রামের ছোলায়মান-এমরান এর সাথে ঝগড়া হয়। ওই ঝগড়াকে কেন্দ্র করে সন্ধ্যায় বাগুর গ্রামের কতিপয় লোকজন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন চান্দিনা ফল বাজারের সামনে এসে রড, ছুরি, রাম দা, করাতসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় মহারং গ্রামেরও কতিপয় লোকজন একই ভাবে পাল্টা হামলা চালায় এবং রাসেল নামে এক ব্যক্তির মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে দুষ্কৃতকারীরা।
চান্দিনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মোর্সেদ জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছি। দুই পক্ষের হামলাকারীদের সংখ্যা দুই শতাধিক। যার ফলে আমরা অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করেছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply