কুমিল্লা নগরীতে ককটেল বিস্ফোরণ ও গাড়ী ভাংচুর : আটক-২

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ–
কেন্দ্রীয় শিবিরের সভাপতির মুক্তির দাবীতে ছাত্রশিবিরের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে কুমিল্লা নগরীতে সকালে চকবাজার ৪টি ককটেল বিস্ফোরণ টায়ারে আগুণ ও পুলিশের ফাঁকা গুলির মধ্য দিয়ে হরতাল পালিত হয়। কুমিল্লায় সকাল থেকেই নগরীর বেশ কয়েকটি রাস্তায় টায়ারে আগুণ জ্বালিয়ে ও খন্ড খন্ড মিছিল করে ছাত্র শিবির কর্মীরা। হরতালের সমর্থনে সকালে নগরীর ধর্মপুর এলাকায় পৃথক ঝটিকা মিছিল করেছে ইসলামী ছাত্র শিবির জেলা শাখা, মহানগর শাখা এবং ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখার নেতৃবৃন্দ। চৌদ্দগ্রামে ৮টি ট্রাক ভাংচুর হয়েছে।
সকাল সাড়ে ৬টায় হরতালের শুরুতে নগরীর টমছমব্রীজ এলাকায় ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে মিছিল বের করে এবং ৩টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এরপর নগরীর লাকসাম রোডের কাশেম উলুম মাদ্রাসার সামনে ছাত্রশিবির মিছিল বের করলে পুলিশ ধাওয়া করে তা ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
নগরীতে কোন পিকেটিং না হলেও জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সড়কে ঝটিকা মিছিল বের করছে। নগরীতে রিকসা-অটোরিক্সা চলাচল করছে।
কোতয়ালী থানার এসআই সামসুজ্জামান জানান- চকবাজার এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নগরীর শাসনগাছা, চকবাজার ও জাঙ্গালিয়া বাসস্ট্যাান্ড থেকে কোন যানবাহন ছেড়ে যায়নি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কোন যানবাহন চলাচল করছে না। হরতালে নগরীতে কোন যানবাহন চলাচল করেনি। তবে ছোট-খাটো সিএনজি, রিক্সা, অটোরিক্সা, মোটর সাইকেল চলাচল করেছে।
চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন সড়কে পিকেটিং করেছে জামায়াত-শিবির কর্মীরা। সকালে উপজেলার পদুয়া ও দত্তসার এলাকায় পিকেটাররা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ও লাঠিচার্জ করে ৮টি ট্রাকের গ্লাস ভাংচুর করেছে।
এদিকে জেলার দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টঞ্জে শিবির কর্মীরা মিছিল বের করলে পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে ১০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। চান্দিনায় হরতালের সময় ২ শিবির কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply