মাল্টিমিডিয়া পদ্ধতি পাঠদানে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনবে

ঢাকা :–
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, ‘মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম পদ্ধতি এদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আনবে।
রোববার রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলে আইসিটি’র মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন প্রকল্প আয়োজিত ২৩ হাজার ৩’শটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম চালুর লক্ষ্যে প্রজেক্টর সরবরাহের বিষয়ে সাতটি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিসাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন তিনি।
চুক্তি হওয়া প্রতিষ্ঠান সাতটি হলো- স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি), ওরিয়েন্ট কম্পিউটার্স, ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লি., আইওই (বাংলাদেশ) লি., ফ্লোরা লি., এক্সপ্রেস সিস্টেমস লি. এবং ওরিয়েন্টাল সার্ভিসেস এভি (বিডি) লি.।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘সরকার প্রথম পর্যায়ে বিদ্যুৎ সংযোগ আছে দেশের এমন ২৩ হাজার ৩’শটি স্কুল-মাদ্রাসায় এ ব্যবস্থা চালু করছে। পর্যায়ক্রমে সকল স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম চালু করা হবে।

তিনি বলেন, ‘বিগগত চারবছরে শিক্ষাখাতে ঐতিহাসিক সংস্কার আনা সম্ভব হয়েছে। জাতীয় শিক্ষানীতি, ১ জানুয়ারি বই প্রদান, সুনির্দিষ্ট তারিখে পাবলিক পরীক্ষা শুরু ও ফল প্রকাশ, তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার নিশ্চিত করা, সৃজনশীল প্রশ্নপদ্ধতি প্রবর্তন, প্রাথমিকে প্রায় শতভাগ ভর্তি, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা সমতা আনয়নসহ বিভিন্ন খাতে দৃশ্যমান পরিবর্তন আনা হয়েছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত, আধুনিক প্রযুক্তিতে দক্ষ নতুন প্রজন্ম গড়ে তোলা। আমরা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তির ধারণা পৌঁছে দিতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘আমরা সরকারের নিজস্ব অর্থে আইসিটি প্রকল্প গ্রহণ করেছি। ডিজিটাল কন্টেন্ট তৈরির জন্য ২৩ হাজার ৩শ’ জন কম্পিউটার শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম পদ্ধতি আমাদের প্রচলিত পাঠদান ও গ্রহণ পদ্ধতিতে বিশাল পরিবর্তন আনবে।’

নুরুল ইসলাম নাহিদ তিনি বলেন, ‘আগামী মে মাসের মধ্যে ২০ হাজার ৫’শটি স্কুলে
ল্যাপটপ, ইন্টারনেট মডেম, স্পিকার ইত্যাদি সরবরাহ সম্পন্ন হবে। আগামী জুন থেকে প্রজেক্টর সরবরাহ শুরু হবে। একপর্যায়ে দেশের সকল শিক্ষার্থীর হাতেই একটি করে ল্যাপটপ তুলে দেওয়া হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিক্ষাসচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব ইকবাল খান চৌধুরী, প্রকল্প পরিচালক আবুল কালাম আজাদ বক্তৃতা করেন।

Check Also

দেবিদ্বারে মাদ্রাসার ফলাললে শিক্ষার্থীরা এগিয়ে : পিছিয়ে কলেজ

দেবিদ্বার প্রতিনিধি :– কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় এবারের এইচ এস সি ও আলিম পরীক্ষায় মোট জিপিএ-৫ ...

Leave a Reply