আখাউড়ায় টিউটোরিয়াল পরীক্ষার নামে লাখ টাকার বাণিজ্য!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ–
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় কয়েকটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় টিউটোরিয়াল বা ক্লাশ পরীক্ষার নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা আদায়ের অভিযোগ মিলেছে। টিউটোরিয়াল বা ক্লাশ পরীক্ষা নেওয়ার সরকারী কোন নির্দেশনা থাকলেও উপজেলার ৪/৫টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে। আর এই পরীক্ষার ফি বাবদ প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে রশিদ বিহীন ২০০-৩০০ টাকা পর্যন্ত আদায় করছে।
জানা যায়, ২০১৩ সনে সরকার আইন করে মাধ্যমিক বিদ্যায়য়ে বছরে দুইটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পূর্বে ছিল তিনটি পরীক্ষা। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ত্রৈমাসিক পরীক্ষা নেওয়ার সুযোগ নাই। কিন্তু আখাউড়ার নাছরীন নবী বিদ্যালয়, দেবগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এবং হীরাপুর নোয়াব মেমোরিয়াল, মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয় ক্লাশ টেষ্ট পরীক্ষার নামে ত্রৈমাসিক পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে। আর এই পরীক্ষার ফি বাবদ প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে ২০০-৩০০ টাকা করে আদায় করছে। আখাউড়া মাধ্যমিক ও শিক্ষা কর্মকর্মতা দেলোয়ার হোসেন জানান, ‘অতিরিক্ত ফি নিয়ে পরীক্ষা নিয়ে থাকলে সেটা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন শিক্ষক জানান, ‘ছাত্রছাত্রীদের মানোয়ন্নয়নের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। প্রশ্ন তৈরি, খাতা সরবরাহসহ আনুষঙ্গিক কিছু খরচ আছে। এজন্য ফি নেওয়া হচ্ছে।’ একটি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ‘সরকারি নিয়ম মাফিক পরীক্ষা ছাড়া অন্য কোন পরীক্ষা নিতে বারন করেছি। কিন্তু শিক্ষকরা তা না মেনে ২০০ টাকা ফি নিয়ে পরীক্ষা নিচ্ছে।’ আখাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, ‘মডেল টেস্ট বা টিউটোরিয়াল পরীক্ষা নেওয়া অন্যায় নয়। কিন্তু অতিরিক্ত ফি নিয়ে পরীক্ষা নেওয়া ঠিক নয়।’ জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী সলিমুল্লাহ জানান, ‘শিক্ষার্থীদের মানোন্নয়নের জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষ এ ধরণের পরীক্ষা নিতে পারে। কিন্তু এর জন্য দুইশ’-আড়াইশ টাকা ফি নেওয়া ঠিক না।’

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply