হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে হেফাজতে জামায়াত সমাবেশ: সরকার বসে তামাশা দেখছে : ইমরান

ঢাকা :–
গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার বলেছেন, ‘দেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ, সাংবাদিকসহ জনগণের উপর হামলা করছে জামায়াত-শিবির, কিন্তু সরকার বসে বসে তামাশা দেখছে।’

শনিবার রাতে শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরের মহাসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. ইমরান বলেন, ‘মতিঝিলের সমাবেশে হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে হেফাজতে জামায়াত সমাবেশ করেছে। তারা যে বক্তব্য দিয়েছে তা আমাদের সংবিধান পরিপন্থি। এসব কিছু জেনেও সরকার কিভাবে তাদের সমাবেশের অনুমতি দেয় তা বোধগম্য নয়।’
তিনি বলেন, ‘মূলত সরকার তাদেরকেই বন্ধু ভাবতে শুরু করেছে। আর আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আন্দোলন করে যাচ্ছি তাদেরকে বিভিন্নভাবে বাধা দিচ্ছে।’

এ সময় তিনি শনিবার দুপুরে প্রেস ক্লাবের সামনে একুশে টেলিভিশনের মহিলা রিপোর্টারের উপরে হামলার নিন্দা জানান। সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখে ডা. ইমরান বলেন, ‘আর কত পুলিশের উপর হামলা হলে, আর কত সাংবাদিকের উপর হামলা হলে, আর কত সহিংসতা হলে আপনারা জামায়াতকে নিষিদ্ধ করবেন?’

সোমবার হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালকে প্রতিহত এবং সোমবার পর্যন্ত প্রজন্ম চত্বরে অবস্থান করার জন্য সবাইকে আহ্বান জানান তিনি।

সমাবেশ শেষে ইমরান এইচ সরকার পরবর্তী কর্মীসূচি ঘোষণা করেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ৮ এপ্রিল সকাল ১১টায় সারাদেশে পতাকা মিছিল, ৯ এপ্রিল সারাদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ধর্মঘট, ১০ এপ্রিল সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত আইন মন্ত্রণালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি এবং ১৪ এপ্রিল সারাদিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বিকেল ৩টায় প্রজন্ম চত্বরে মহাসমাবেশ। তবে এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা ৯ এপ্রিলের কর্মসূচির বাইরে থাকবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply