রাবি ফুলকুঁড়ি আসরের স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপন

SAMSUNG DIGITAL CAMERAরাজশাহী প্রতিনিধিঃ–
জাতীয় শিশু-কিশোর সংগঠন ফুলকুঁড়ি আসর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদৃযাপন করেছে। এ উপলক্ষে তাদের বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি ছিল। কর্মসূচির সমাপনী হয় বিকেলে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।
মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সকাল ৭টায় ফুলকুঁড়ি আসরের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এক বর্ণাঢ্য শিশু-কিশোর র‌্যালির আয়োজন করা হয়। এতে প্রায় শতাধিক ফুলকুঁড়ি শিশু-কিশোর ও সংগঠক অংশগ্রহণ করে। র‌্যালিটি ক্যাম্পাস হয়ে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকা প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালি শেষে দুইটি পূর্ণাঙ্গ প্লাটুন নিয়ে তারা জেলা প্রশাসনের আমন্ত্রণে এ এইচ এম কামরুজ্জামান (রাজশাহী বিভাগীয়) স্টেডিয়ামে ডিসপ্লে ও কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করে। এখানে প্যারেড কমান্ডার খালিদ সাইফুল্লাহ শাব্বির ও মুনতাসির মুবিন নাশিত-এর নেতৃত্বে দুইটি প্লাটুন আমন্ত্রিত অতিথিদের সামনে দিয়ে মাঠ অতিক্রম করে। এসময় কমান্ডারের নেতৃত্বে ফুলকুঁড়ি আসরের শিশু-কিশোররা আগত অতিথিদের সালাম জানায়।
কুচকাওয়াজ শেষে বিকেলে ক্যাম্পাসের শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা পরিদর্শন করা হয়। এরপর শহীদ মিনার চত্ত্বরে ফুলকুঁড়ির পক্ষ থেকে এক আনন্দ আড্ডার আয়োজন করা হয়। এখানে শিশু-কিশোররা গান, আবৃত্তি, কৌতুক, অভিনয় করে এক মজার আড্ডা তৈরি করে। আড্ডা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ফুলকুঁড়ি আসর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাংস্কৃতিক সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম। পরে মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে এক উন্মুক্ত কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
প্রতিযোগিতা শেষে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের উপর এক উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। শাখা পরিচালকের সভাপতিত্বে এতে অংশগ্রহণ করেন সহকারী পরিচালক শাহাদাত হোসেন, অর্থ সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান, শিক্ষা-সাহিত্য সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, খেলাধুলা ও ব্যায়াম সম্পাদক আব্দুর রহমান হালিম, প্রচার সম্পাদক এজাজুল হক। এছাড়াও বিভিন্ন বিভাগীয় সম্পাদক ও ফুলকুঁড়ি আসরের সদস্যরা এতে অংশগ্রহণ করেন। আলোচনা শেষে শাখা পরিচালক এস এম এ বারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।
উল্লেখ্য, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে ফুলকুঁড়ি আসর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সপ্তাহব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে। সপ্তাহব্যাপি এ কর্মসূচির মধ্যে ছিল- সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, উন্মুক্ত কুইজ প্রতিযোগিতা, রচনা প্রতিযোগিতা, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান, ক্যাম্পেইন, দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, বর্ণাঢ্য শিশু-কিশোর র‌্যালি, অভিভাবক সমাবেশ, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ইত্যাদি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply