বিজেপি বাংলাদেশে পদযাত্রা করেনিঃ আখাউড়া সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ’র সতর্ক প্রহরা

Brahmanbaria Picture(BGB-BSF,Akhaura)18.03আরিফুল ইসলাম সুমন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ—
বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন বন্ধ ও তাঁদের জীবন-সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে ভারতের ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপি’র (ভারতীয় জনতা পার্টি) নেতাকর্মীরা পদযাত্রা নিয়ে বাংলাদেশে আসেননি। সোমবার পর্যন্ত এই ধরণের কোনো পদযাত্রার খবর পাওয়া যায়নি। সোমবার দুপুরে ত্রিপুরা থেকে তাদের বাংলাদেশে আসার কথা ছিল।
জানা যায়, ভারতের ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপি’র বাংলাদেশ অভিমুখে পদযাত্রাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সতর্ক প্রহরায় ছিল। বিজিবি ১২ ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর শাহজাহান জি’র নেতৃত্বে জওয়ানরা অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সতর্ক অবস্থানে ছিলো। এদিকে আখাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. মিজানুর রহমান একদল পুলিশ সদস্য নিয়ে নো-ম্যান্স ল্যান্ডে আসেন। বেলা একটায় আখাউড়া নো-ম্যান্স ল্যান্ডে বিজিবি-১২ ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর শাহজাহান জি ত্রিপুরার বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার মেজর চিতর পালের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে এই বিষয়ে আলোচনা করেন। পরে বিজিবি উপ-অধিনায়ক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা সতর্ক রয়েছি। অবৈধভাবে কেউ বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করলে প্রতিহত করা হবে। বিএসএফ’র পক্ষ থেকে আমাদেরকে নিশ্চিত করেছে ত্রিপুরা থেকে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দিবে না।’
প্রসঙ্গত, গত রোববার ভারতের ত্রিপুরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় ‘আগরতলা থেকে ঢাকা যাচ্ছে বিজেপি’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদ সূত্রে জানা যায়, বিজেপির ৫-৭শ’ নেতাকর্মী সোমবার পদযাত্রা করে বাংলাদেশে আসবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply