জাপানস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসে বিএনপি’র স্মারকলিপি প্রদান

Sharoklipiআতিকুর রহমান, টোকিও (জাপান) থেকেঃ—
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে গনহত্যা, বি.এন.পির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পুলিশের ন্যাক্কার জনক হামলা, বিরোধী দলের গ্রেফতার ইসলাম বিদ্ধেষী শাহবাগী ব্লগারদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি, গ্রেফতার কৃত নেতা-কর্মীদের মুক্তি, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্তাবধায়ক সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবীতে ১৫ মার্চ জাপানস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসকে স্মারকলিপি দিয়েছে বি.এন.পি জাপান শাখা। ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন ও সাধারন সম্পাদক মীর রেজাউল করীম রেজার নেতৃত্বে জাতীয়তাবাদী দল(বি.এন.পি) জাপান শাখা ও তার অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ টোকিওস্থ বাংলাদেশ এম্বেসীতে গিয়ে দুতাবাসের মাধ্যমে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধান মন্ত্রী ও রাস্ট্রপতি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপি গ্রহন করেন দুতাবাসের ইকোনোমিক কাউন্সিলর ডঃ জীবন রঞ্জন মজুমদার এবং পলিটিক্যাল কাউন্সিলর মাসুদুর রহমান। বি.এন.পি জাপান শাখার নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন মিঠু ,মকবুল হোসেন মোল্লা,ইকবাল হোসেন,সিরাজুল কাদের,মোবারক হোসেন হ্রদয়,তৌহিদুল ইসলাম রিপন,আফতাব আহমদ ,জসিম উদ্দিন প্রমুখ।
Protest
বাংলাদেশ সরকারের প্রধান মন্ত্রী ও রাস্ট্রপতি বরাবরে পাঠানো স্মারকলিপিতে জাপান বি.এন.পির পক্ষ থেকে বলা হয় জাপানে বসবাসরত আমরা বাংলাদেশী নাগরিক বৃন্দ গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি যে, বাংলাদেশে বর্তমান সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে বিরোধীমত দমন করার জন্য সম্পুর্ন অগনতান্ত্রিক পন্থা অবলম্বন করে আসছে। তারই একটি নমুনা আমরা গত ১১ই মার্চ দেখতে পেলাম।বি.এন.পির শান্তিপুর্ন বিক্ষোভ সমাবেশে সরকারের পুলিশ বাহিনী অতর্কিত হামলা চালিয়ে সমাবেশ পন্ড করে দেয়। শুধু তাই নয়,বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বি.এন.পি র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পুলিশ বাহিনী প্রবেশ করে বিভিন্ন কক্ষ তছনছ করে এবং প্রায় ১৫০জন নেতা কর্মীকে গ্রেফতার করে।এ ধরনের নজির বিহীন ঘটনা শুধু বাংলাদেশে নয়, পৃ্থিবীর কোথাও ঘটেনি। জাপান বিএনপি এ ঘটনার বিচার এবং তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি।
আজ বাংলাদেশ এক ভয়াবহ সংকটের মধ্যে অবস্থান করছে।এমন ভয়াবহ অবস্থা স্বাধীনতার পর আর কখনো সৃস্টি হয়নি।গোটা জাতীকে আজ বিভক্ত করে ফেলা হয়েছে।দেশের বিপুল সংখ্যাগরিস্ট মানুষের পবিত্র ধর্ম ইসলাম এবং আমাদের মহান স্বাধীনতা কে আজ পরিকল্পিত ভাবে প্রতিপক্ষ বানিয়ে মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেয়া হয়েছে।ইসলাম এবং স্বাধীনতায় কোন বিরোধ নেই। অথচ একটি কুচক্রি মহল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের নামে শাহবাগে জড়ো হয়ে সরকারের প্রত্যক্ষ প্রোটেকশনে নাস্তিক ব্লগাররা পবিত্র ইসলাম, আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এবং মহানবী হযরত মুহাম্মদ(সঃ) এর বিরোদ্ধে নোংরা ভাষায় কুৎসা রটনা করছে।আমরা অনতিবিলম্বে এ ধরনের কার্যক্রমের সাথে যারা জড়িত ঐ সকল অপরাধীদের সনাক্ত করে বিচার দাবী করছি।
আজ বাংলাদেশের জনগোস্টীকে বিভক্ত করে এক ভয়ঙ্কর সংঘাত ও সহিংসতার পরিবেশ সৃস্টি করা হয়েছে।বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকের মত আমরাও উৎকন্ঠিত।সবার নিরাপত্তা আজ বিপন্ন।এই অনৈক্য ও সংঘাত আমাদের জাতীয় নিরাপত্তাকে গুরুতর হুমকির মুখে ঠেলে দিয়েছে।এই ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃস্টির সব দায়দায়িত্ব এই সরকারকেই নিতে হবে।এমতাবস্থায় আমাদের বক্তব্য সুস্পস্ট দাবী হলো
১। বি.এন.পির যে সকল নেতা কর্মীদের অন্যায় ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের অনতিবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।
২। গনহত্যা,দুর্নীতি,দুঃশাসন,নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধ করতে হবে।
৩। ইসলাম বিদ্ধেষী শাহবাগী ব্লগারদের গ্রেফতার ও শাস্তি দিতে হবে
৪। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।
৫। নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্তাবধায়ক সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের গনদাবী মানতে হবে।
আমরা জাপান প্রবাসী বাংলাদেশীরা এ সকল কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য অনুরোধ করছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply