বর্ষীয়ান আ’লীগ নেতা আব্দুল জলিলের মূত্যতে মালয়েশিয়া আ’লীগ, যুবলীগ, ছ্এালীগের শোক প্রকাশ

Abdul jalil

বাংলাদেশ আ’লীগ এর বর্ষীয়ান নেতা, আ’লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও দীর্ঘদিনের আ’লীগের সফল সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য আব্দুল জলিলের মূত্যৃতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন মালয়েশিয়া আ’লীগ,ছাএলীগ,যুবলীগ,শ্রমীকলীগ। তার মুত্যতে তার শোকা বহ-পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে শোক বার্তায় সাহ্মর করেন মালয়েশিয়া আ’লীগ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মকবুল হুসেন মুকুল, সহ-সভাপতি অহিদুর রহমান, সহ-সভাপতি এম.এইচ হাজ্বী জাকারীয়া, সহ-সভাপতি আব্দুল করিম,সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম সরকার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রাসেদ বাদল, যুগ্ন-সম্পাদক হুমায়ন কবীর, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন সর্দার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন, ছাএলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম জহির,সাধারণ সম্পাদক বিজন মজুমদার,সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ শরীফ আহমেদ রাজা,ছাএনেতা মাহাবুবুর রহমান রুবেল, যুবলীগ যুগ্ন-আহবায়ক মনসুর আল বাসার সোহেল,যুবলীগ নেতা শেখ মোহাম্মদ কাইয়ুম, শ্রমিক লীগ সভাপতি হাজ্বী লিটন আজিজ দেওয়ান , কৃষি সম্পাদক নুর মোহাম্মদ ভূইয়া,তথ্য ও গভেষনা সম্পাদক এম.আমজাদ চৌধুরী রুনু, প্রচার সম্পাদক শাখাওয়াত হুসেন জোসেফ, দপ্তর সম্পাদক এস.এম আবুল হুসেন, সাইফুল ইসলাম সিরাজ, নাজমুল হুসেন প্রমূহ।
এক যৌথ শোক বার্তায় তারা বলেন শোক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “মরহুম আব্দুল জলিল আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির পরাধীনতার শৃঙ্খল মোচন, সুমহান মুক্তিযুদ্ধ সংগঠনে এবং রণাঙ্গনে বীরত্বপূর্ণ গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করেছেন। স্বাধীনতা লাভের পর যুদ্ধ-বিধ্বস্ত বাংলাদেশের পুনগর্ঠন ও পুনর্বাসন কর্মসূচি বাস্তবায়নে যথোচিত অবদান রেখেছেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যা করার পর তাকেও অনেক অত্যাচার, নির্যাতন ও কারাবরণ সহ্য করতে হয়েছে; কিন্তু বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রাম থেকে তাকে বিরত রাখা সম্ভব হয়নি।”
“মরহুম আব্দুল জলিল রাজনীতিতে আত্মনিয়োগের পর থেকে মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের জন্য বারংবার তাদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর এলাকার মানুষের মাঝে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয় ছিলেন এ বর্ষীয়ান জননেতার মুত্যতে যে নেত্বত্ব শূণ্য হল তা কখনো পূরন হওয়ার মত না, মুক্তিযুদ্ধের এ সংগঠক শুধু রাজনীতিতে নয় ব্যবসা-বানিজ্য শিল্পউন্নয়নের মাধ্যমে দেশের মাটি ও মানুষের জন্য কাজ করেগেছেন আজীবন, কর্মসংস্হান সৃষ্টির মাধ্যমে বেকারত্ব দূরীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা রাখেন এ নেতা, মরহুম আব্দুল জলিল শুধু নওগাঁর নেতা ছিলেন না তিনি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের স্বপহ্মের শক্তিতে তিনি ছিলেন এক অতুলনীয় সমগ্র বাংলাদেশের নেতা, তিনি ১৫ই আগষ্টের পট পরিবর্তনের সেই কঠিন দিন গুলিতে শ্রম দিয়ে অর্থদিয়ে মুক্তিযুদ্ধের স্বপহ্মের রাজনীতিকে জাগিয়ে রেখেছিলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্নেহ ভাজন ষাটের দশকের তুখর ছাএনেতা ছিলেন আব্দুল জলিল।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

Check Also

দাউদকান্দিতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

হোসাইন মোহাম্মদ দিদার :কুমিল্লার দাউদকান্দিতে শান্তা বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ...

Leave a Reply