কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুদক’র ভূয়া পরিচালক আটক

COMILLA Pic-26-2স্টাফ রিপোর্টার কুমিল্লাঃ—
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুদকের ভূয়া পরিচালক সেজে প্রতারনার অভিযোগে জনতা-পুলিশ শহিদুল হক নামের এক ব্যক্তিকে মঙ্গলবার দুপুরে আটক করেছে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শহিদুল হক নিজেকে ঢাকার সেগুন বাগিচাস্থ অফিসের দুদক’র সহকারী পরিচালক পরিচয় দিয়ে শফিক সাহেদ নামে গত ২৫ ফেব্র“য়ারী সোমবার স্থানীয় টাইম স্কয়ার হোটেলের একটি কক্ষ ভাড়া করে। গতকাল মঙ্গলবার স্থানীয় জনগণ ওই পরিচয়ে প্রতারনার অভিযোগে তাকে আটক করে। শহিদুল হক নোয়াখালীর সোনামুড়ি উপজেলার বরপটি গ্রামের মজিবুল হকের ছেলে। এদিকে সোনালী ব্যাংক কুমিল্লার কর্পোরেট শাখার ডিজিএম শওকত আলীর টেলিফোন নির্দেশে সোনালী ব্যাংক স্থানীয় নোয়াবাজার শাখার ম্যানাজার জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী দুদক’র একজন কর্মকর্তা ওই হোটেলে আছে মর্মে খোঁজ-খবর নিতে ওই হোটেলে যায়। এ সময় জনগণ তাকেও আটক করে। খবর পেয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার এ এস আই শাহিনের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ভূয়া দুদক কর্মকর্তা শহিদুল হক ও ম্যানাজার জসিম উদ্দিনকে থানায় নিয়ে আসে। এ বিষয়ে পুলিশ দুদক’র উচ্চ পর্যায়ে খোঁজ খবর নিয়ে শহিদুল হকের পরিচয় প্রাথমিকভাবে ভূয়া প্রমাণিত হওয়ায় শহিদুল হককে গ্রেফতার করে। এ এস আই শাহিন বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় ব্যাংক ম্যানাজার জসিমকে স্বাক্ষী করে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এ বিষয়ে ব্যাংক ম্যানাজার জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী জানান, রিয়াজুল ইসলাম নামের দুদক’র একজন কর্মকর্তা ওই হোটেলে অবস্থান করছে মর্মে ডিজিএম শওকত আলীর এমন টেলিফোন নির্দেশে খোজ-খবর নিতে আমি ওই হোটেলে যাই। প্রকৃতপক্ষে আটক ভূয়া দুদক কর্মকর্তা শহিদুল হকের সাথে আমার কোন জানা-শুনা নেই।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply