কুমিল্লার দেবিদ্বারে পুলিশের স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড, স্ত্রীর যাবজ্জীবন

comilla-fashi-wife-husbandকুমিল্লা প্রতিনিধিঃ—
কুমিল্লায় চাঞ্চল্যকর একটি হত্যা মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড এবং স্ত্রীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন কুমিল্লার আদালত।

বুধবার বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ এ আর মাসউদ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, মামুন প্রকাশ রানা এবং তার স্ত্রী পারুল আক্তার।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১১ সালের ১৯ জুলাই দণ্ডপ্রাপ্ত মামুন এবং তার স্ত্রী পারুল আক্তার জেলার দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জে তাদের বাড়ির মালিক পুলিশের এসআই ময়নাল হোসেনের স্ত্রী মীতা শাহানাজকে নৃশংসভাবে হত্যা করে বাড়ির সর্বস্ব লুটে নেয়। এ ঘটনায় একই দিন মামুন এবং তার স্ত্রী পারুল আক্তারকে অভিযুক্ত করে দেবিদ্বার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

পরবর্তীতে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে।

এ হত্যা মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ১৪ সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত বুধবার এ রায় প্রদান করেন। রায়ে আসামি মামুনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড এবং তার স্ত্রী পারুল আক্তারকে জাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

রাষ্টপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান এবং আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফারুক আহাম্মদ।

মামলায় রাষ্টপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান বলেন, স্ত্রী পারুল আক্তার এ মামলায় সম অপরাধে অভিযুক্ত হলেও তার কোলের শিশুসন্তানের দিকটি বিবেচনা করে তাকে জাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেছে আদালত।
এদিকে মামলার বাদীপক্ষ এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply